বাবরি মসজিদ মামলার রায় ঘোষণা করেছে ভারতের সুপ্রীম কোর্ট

আলোচিত বাবরি মসজিদ মামলার রায় ঘোষণা করেছে ভারতের সুপ্রীম কোর্ট। মুসলমানদের জন্য নতুন মসজিদ নির্মেণের জন্য আলাদা জমি বরাদ্দ দিতেও নির্দেশ দেন সর্বোচ্চ আদালত। শনিবার ভারতের প্রধান বিচারক রঞ্জন গগৈর নেতৃত্বাধীন পাঁচ সদস্যের সাংবিধানিক বেঞ্চ সর্বসম্মতির ভিত্তিতে এ রায় দেন।
এর আগে প্রায় এক দশক আগে আল্লাহাবাদ হাইকোর্টে হিন্দু ও মুসলমান মকদ্দমাকারীদের মাঝে জায়গাটি আনুপাতিক হারে ভাগ করে দেয়ার রায় দিয়েছিলেন। কিন্তু পরবর্তীতে এই রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতের শরণাপন্ন হন দুই পক্ষ।
ধর্মীয় স্থানটির এ রায়কে কেন্দ্র করে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ঐ সময় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কয়েক হাজার সদস্য মোতায়েন করা হয়।
উত্তর প্রদেশের অযোধ্যায় ১৬ শতকের বাবরি মসজিদটি নিয়ে হিন্দু ও মুসলমানরা কয়েক দশক ধরে তিক্ত বিরোধে জড়িয়ে পড়েছেন।
হিন্দুদের বিশ্বাস, তাদের দেবতা রাম ওখানে জন্ম নিয়েছে।
পরে ১৯৯২ সালে কট্টর হিন্দুত্ববাদীরা মসজিদটি ভেঙে দিলে পরিস্থিতি আরো উত্তেজিত হয়। তখন ঐ পরিস্থিতিকে কেন্দ্র করে দাঙ্গায় দুই হাজারের বেশি লোক নিহত হন।
এদিকে, ভারতের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ ১৭ নভেম্বর অবসরের আগেই জায়গাটির মালিকানার দাবি নিয়ে মামলার রায় দেবেন বলে প্রত্যাশা করা হয়েছিল।
অযোধ্যা পুলিশের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা আশিস তিওয়ারি বলেন, বিভিন্ন সংস্থার কয়েক হাজার অতিরিক্ত সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। অতিরিক্ত যান, সিসিটিভি ক্যামেরা, বডি ক্যামেরা ও ড্রোন মোতায়েন করা হয়েছে।