বাজেটে সরকারের টার্গেট ঢাকা সিলেট মহাসড়ক ওসমানীনরগ দয়াময়ী গোয়ালাবাজারসহ চারটি ফ্লাইওভার

এনাম রহমান,  সিলেট জেলা প্রতিনিধি:  নতুন অর্থবছরের বাজেটে সড়ক যােগাযােগ খাতে সরকারের প্রথম টার্গেট ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক চারলেনে উন্নীতকরণ চারটি ফ্লাইওভারসহ সিলেট ভাসীর বহুল প্রতীক্ষিত এই সড়কটি সার্ভিস লাইনসহ চারলেনে উন্নীত করা ছাড়াও সিলেট- তামাবিল মহাসড়ক চারলেনে উন্নীতকরণ কার্যক্রম শুরুর প্রস্তাব হবে। অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল জাতীয় সংসদে উত্থাপিত ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেট বক্তৃতায় এ ঘােষণা দেন। অর্থায়ন জটিলতায় দীর্ঘদিন অপেক্ষায় ছিল ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক চার লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্প। অবেশেষে এডিবি এই প্রকল্পে অর্থায়ন করতে সম্মত হয়েছে।
এ বছরের শেষ দিকে প্রকল্পের কাজ শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। সওজ জানায়, ২০১৭ সালে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক চারলেনে উন্নীতকরণ প্রকল্প আকার পায়। মধ্যেখানে এটি থেমে গিয়েছিল। তবেভূমি অধিগ্রহণের প্রকল্পটি একনেকে অনুমােদন হয়ে আছে। ভূমি অধিগ্রহণে ব্যয় হবে ৫ হাজার কোটি টাকা। এছাড়া পুরাে প্রকল্প বাস্তবায়নে ব্যয় হবে ১৪ হাজার কোটি টাকা। চারলেনের পাশাপাশি পাশে ধীর গতির যানবাহন চলাচলের জন্য দুটি সার্ভিস লেনসহ ছয় লেনের আকার হবে সড়কটির। সওজ জানায়, ঢাকার কাঁচপুর থেকে সিলেট পর্যন্ত ২২০ কিলােমিটার সড়ক দুই লেন থেকে চারলেনে উন্নীত করা হবে এ প্রকল্পে।
এই চারলেনের দুইপাশে আলাদা সার্ভিস লেন থাকবে। যেখানে ‘স্লেমুভিং যানবাহন চলাচল করবে। ২২৬ কিলােমিটার দীর্ঘ ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে সােয়া চার কিলােমিটার দৈর্ঘ্যের ৭০টি সেতু নির্মাণ করা হবে। এছাড়াও থাকবে চার হাজার ৩৫৮ মিটার দীর্ঘ চারটি ফ্লাইওভার। ফ্লাইওভারগুলাে ভৈরব, সিলেটের ওসমানীনগর গােয়ালাবাজার, তাজপুর ও দয়ামির বাজার এলাকায় নির্মাণ করা হবে। এছাড়া নরসিংদী, ভৈরব, ওলিপুর, লস্করপুর ও সিলেটে নির্মাণ করা হবে রেল ওভারপাস। নতুন পরিকল্পনায় চারটি ফ্লাইওভার, ১০টি আন্ডারপাস, ৪২টি ফুটওভার ব্রিজ, তিনটি ট্রাক স্ট্যান্ড এবং দু’টি রেস্ট হাউজ থাকবে সড়টিতে। সিলেট চা উৎপাদনে ঐতিহ্যবাহী অঞ্চল। বর্তমানে এখানে বড় বড় শিল্প-কারখানা গড়ে উঠছে।
সিলেটে রয়েছে বেশ কয়েকটি সিমেন্ট ও সার কারখানা। সিলেটের পাথর দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে যায়। অর্থনৈতিক অঞ্চলসহ প্রচুর তেল ও গ্যাসের খনি রয়েছে।মহাসড়কটি হবে এশিয়ান হাইওয়ে-১ এবং এশিয়ান হাইওয়ে-২-এর অংশ। ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক চারলেনে উন্নীত করার দাবি বেশ পুরােনাে। সিলেটে এসে একাধিকবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতিশ্রুতি দিয়ে আসলেও সরকারের গেল দুই মেয়াদে কাজ শুরু করতে পারেনি সড়ক বিভাগ। অর্থায়ন জটিলতায় ঝুলে ছিল এক বছর। সিলেটসহ দেশের উত্তর পূর্বাঞ্চলের মানুষের প্রধান দাবি এই মহাসড়ককে চারলেনে উন্নীত করা।