বাগেরহাটে করোনা ভাইরাসের আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসকের মৃত্যু, মোট আক্রান্ত ১৪৯ জন

মাহফুজুর রহমান বাপ্পী, বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধি: বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে উপেন্দ্রনাথ পাল (৭৫) নামে এক চিকিৎসকের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (২৩ জুন) রাতে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। বুধবার দুপুরে বাগেরহাট স্বাস্থ্য বিভাগ সাংবাদিকদের এই তথ্য জানায়।

বুধবার দুপুরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফকিরহাটের কেন্দ্রীয় মহাশ্মশানে তার অন্তষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। চিকিৎসক উপেন্দ্রনাথ পাল সত্তরের দশকে বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ছিলেন। তার বাড়ি ফকিরহাট উপজেলা সদরের আট্টাকি গ্রামে। ফকিরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. অসীম কুমার সমাদ্দার দুপুরে জানান, গত সোমবার চিকিৎসক উপেন্দ্রনাথ পাল ফকিরহাটের বাড়িতে বসে অসুস্থ হলে তাকে তার পরিবারের সদস্যরা চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।

ওইদিনই তার নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবের পরীক্ষায় তার শরীরে করোনা পজিটিভ হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার রাত সাড়ে আটটার দিকে তার মৃত্যু হয়। এদিকে, বাগেরহাটে একদিনে সর্বোচ্চ ৩১ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস সনাক্ত হয়েছে। মঙ্গলবার খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং যশোরের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পিসিআর ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় এদের শরীরে করোনা ভাইরাস সনাক্ত হয়। গত ১৭ ও ২১ জুন সন্দেহভাজন এই করোনা রোগীদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ল্যাবে পাঠায় স্বাস্থ্য বিভাগ। আক্রান্তদের অধিকাংশের শরীরে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ না থাকায় তাদের বাড়িতে অবরুদ্ধ রেখে চিকিৎসা দিচ্ছে স্বাস্থ্য বিভাগ।

এই নিয়ে বাগেরহাট জেলায় মোট ১৪৯ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস সনাক্ত হল। এর মধ্যে ৩০ জন সুস্থ হয়েছেন। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে বাগেরহাট সদর উপজেলায় রয়েছে ৬জন, শরণখোলা উপজেলায় ৫ জন, ফকিরহাট উপজেলায় ১১ জন, মোংলা উপজেলায় ৩ জন, রামপাল উপজেলায় ২ জন এবং চিতলমারি উপজেলায় রয়েছে ৪ জন। এদের মধ্যে দু’জন বাদে সবাই জেলার বাইরে থেকে ফেরা। বাগেরহাটের সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডা. সুব্রত দাস বলেন, মঙ্গলবার খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং যশোরের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পিসিআর ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় নারী পুরুষ মিলিয়ে ৩১ জনের শরীরে নতুন করে করোনা ভাইরাস সনাক্ত হয়েছে।

বাগেরহাটে এই প্রথম একদিনের নমুনা পরীক্ষায় সবোর্চ্চ ৩১জনের শরীরে করোনা ভাইরাস সনাক্ত হয়েছে। এর আগে একদিনে সর্বোচ্চ করোনা পজিটিভ হয় ১৭ জন। গত ১৭ ও ২১ জুন বাগেরহাটের সন্দেহভাজন এই করোনা রোগীদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ল্যাবে পাঠানো হয়। আক্রান্তদের অধিকাংশের শরীরে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ না থাকায় বাড়িতে রেখে তাদের চিকিৎসাসেবা দেয়া হচ্ছে। সবাই সুস্থ স্বাভাবিক রয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে ৩০ জন ইতিমধ্যে সুস্থ হয়েছেন। বাগেরহাট জেলায় এই নিয়ে মোট ১৪৯ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস সনাক্ত হল।