বাগেরহাটের শরণখোলায় জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধে প্রতিপক্ষের হামলায় নারীসহ আহত-৩

 মাহফুজুর রহমান বাপ্পী, বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধি:  বাগেরহাটের শরণখোলায় জমিজমা সক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষ চাচা ও চাচাতো ভাইবোনদের হামলায় একই পরিবারের নারীসহ তিনজন আহত হয়েছে । বুধবার বিকাল পাঁচটার দিকে উপজেলার খোন্তাকাটা ইউনিয়নের পশ্চিম বানিয়াখালী গ্রামে এ হামলার ঘটনা ঘটে । হামলায় আহত একই পরিবারের মোঃ আমিনুর ফকির (৭০), একমাত্র ছেলে মাসুম ফকির (৪০) ও মেয়ে রেহেনা পারভীন (৪৩) কে স্থানীয়রা উদ্ধার করে শরণখোলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে ।

আহত ও স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, ঘটনার দিন বিকেলে ২ নং খোন্তাকাটা ইউনিয়নের পশ্চিম বানিয়াখালী গ্রামের মোঃ আমিনুর ফকিরের একমাত্র ছেলে হাফেজ মোঃ মাসুম ফকির তার নিজ বাড়ির সামনের মাঠের একটি ভিটেতে গাছ লাগাবে বলে মাটি কেটে রেডি করে বাড়ি চলে যায় । এমন সময় মাসুম ফকিরের ছোট চাচা মোঃ শাহজাহান ফকির (৬০) গিয়ে সেই ভিটের মাটি কেটে ফেলে । তখন মাসুম ফকির এসে চাচাকে বাঁধা দিলে শাহজাহান ফকির সেই জমি তার নিজের বলে দাবি করে ।

এ সময় চাচা ভাতিজার মধ্যে বাক-বিতন্ডার সৃষ্টি হলে পূর্ব শত্রুতার জের মেটাতে পরিকল্পিতভাবে শাহজাহান খান তার স্ত্রী নাজমা বেগম,মেয়ে সুখী আকতার, মিষ্টি আকতার, ওমি আকতার ও বড় ভাই মোঃ মতিয়ার রহমান ফকিরের দুই ছেলে হেলাল ফকির ও উজ্জ্বল ফকির এসে হামলা চালায়। এ সময় মাসুম ফকিরের চিৎকারে তার বাবা ও বোন ছুটে এলে তাদের উপরেও হামলা চালায় শাহজাহান ফকির গং । হামলার স্বীকার মাসুম ফকির জানান, আমি আমার বাবার একমাত্র ছেলে ।

আমাদের জনবল কম বলে ছোটো চাচা ও বড় চাচার ছেলেরা এক হয়ে আমার বাবার জমি দখলসহ বিভিন্ন সময় আমার উপর হামলা চালিয়ে আসছে । এর কোনো প্রতিবাদ করলে চাচাতো বোনদের দিয়ে আমাকে অপমান অপদস্থ করানো হয় । এখন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছি তারাও এসে দেখছি অসুস্থতার নাটক করে ঘুরছে। তাদের নির্যাতনে আমি ও আমার পরিবার অতিষ্ঠ ।

আমরা কিছুতেই তাদের সাথে টিকতে পাছিনা । এ ঘটনায় হামলাকারী শাহজাহান ফকিরের কাছে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে কিছুই বলা যাবেনা বলে সটকে পড়েন । শরণখোলা থানার ওসি এসকে আব্দুল্লাহ আল সাইদ বলেন, অভিযোগ পেলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে ।