বাগমারায় নির্মাণাধীন সেতুর ফাটলে প্রলেপ দেয়ার অভিযোগ

নুর কুতুবুল আলম, রাজশাহী প্রতিনিধি: রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার নির্মাণাধীন সেতুর পাখার ফাটলে সিমেন্ট দিয়ে প্রলেপ দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার আউচপাড়া ইউনিয়নের মির্জাপুর গ্রামের প্রবেশ পথে নির্মাণাধীন সেতুটির অবস্থান। নির্মাণাধীন সেতুর ফাটলে সিমেন্ট দিয়ে প্রলেপ দেয়ায় স্থানীয়দের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে বলে জানতে পারা গেছে।

সরজমিন সেতুটির কাছে গিয়ে কিছু জায়গায় সিমেন্ট দিয়ে প্রলেপ/পোঁচ (যা বর্তমানে শুকিয়ে গেছে) দেয়া দেখতে পাওয়া গেছে। মির্জাপুর গ্রামের জামাল হোসেন সেতুটির পাক্কলিত ব্যয় সম্বলিত সাইনবোর্ড এবং ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের নাম না থাকায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন। মুগাইপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হাফিজ আল আসাদ, তথ্য প্রযুক্তি লীগ রাজশাহী জেলা শাখার যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানা জানান, সেতুটির দক্ষিণ দিকের পাখার কিছু ফাটল দেখা দেয়।

যা এলাকাবাসী প্রত্যক্ষ করেছেন, এবং রিপিয়ারিং বা পুনঃনির্মাণ না করে সিসেন্ট দিয়ে হালকা পোঁচ দিয়েছে ঠিকাদারের লোকজন। প্রধান শিক্ষক হাফিজ আরও জানান, ত্রাণ ও দুর্যোগ মন্ত্রণালয়ের অধিন সেতুটি নির্মাণ হলেও প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস বাগমারা উপজেলার পক্ষ থেকে তদারকির জন্য চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী ছাড়া কেউ আসেন না। সেতুটির দেখভালের দায়িত্বে থাকা পুঠিয়া এলাকার মঙ্গলপাড়ার মহিদুল ইসলাম, খাঁন এন্টারপ্রাইজ রাজশাহী এর স্বত্বাধিকারী সফিউল আলম খাঁনের একটি মোবাইল নম্বর দেন, বার বার রিং দিলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

প্রকল্পবাস্তবায়ন কর্মকর্তা মাসুদুর রহমান মুঠোফেনে বলেন, আমাকে কেউ অভিযোগ দেয়নি, আপনি বল্লেন আগামীকাল (রবিবার) খোঁজ নেয়া হবে। বাগমারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শরিফ আহম্মেদকে মুঠোফোনে অবহিত করা হলে তিনি পিআইও কে খোঁজ নেয়ার জন্য বলবেন বলে জানান।