বাউড়ায় তৃতীয় শ্রেণির এক মাদরাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

এম,এ মালেক, হালুয়াঘাট প্রতিনিধি: ময়মনসিংহের ধোবাউড়ায় তৃতীয় শ্রেণির এক মাদরাসা ছাত্রীকে (১১) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে আব্দুস সাত্তার (৬০) নামে এক বৃদ্ধের বিরুদ্ধে। আজ বুধবার (২৮ অক্টোবর) ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ওই শিশুকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগে পাঠানো হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন ধোবাউড়া থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ।

অভিযুক্ত আব্দুস সাত্তার উপজেলার কলসিন্দুর বাজারে মুদি ব্যবসা করেন। ভুক্তভোগী ওই শিক্ষার্থী উপজেলার কলসিন্দুর ইউনিয়নের বাসিন্দা। সে স্থানীয় একটি কওমী মাদরাসার তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রী। গতকাল সোমবার (২৬ অক্টোবর) রাতে ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে আব্দুস সাত্তারকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ধোবাউড়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এর আগে ওই দিন দুপুরে ধোবাউড়া উপজেলার কলসিন্দুর বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ওসি বলেন, সোমবার দুপুরে ওই ছাত্রী কলসিন্দুর বাজারের আব্দুস সাত্তারের মুদি দোকানে গেলে কাজ আছে বলে শিশুটিকে দোকানের ভেতরে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করেন তিনি। দোকান থেকে বাড়িতে ফিরে মাকে বিষয়টি খুলে বলে শিশুটি। পরে বিষয়টি জানাজানি হলে ওই শিশুর বাবা-মা ওই দিন স্থানীয়দের কাছে বিচার চেয়ে নালিশ করেন।

এলাকাবাসী মিমাংসার চেষ্টা করে ব্যর্থ হলে ওই ছাত্রীর মা রাতেই বাদী হয়ে ধোবাউড়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেন। এঘটনার পর থেকে আব্দুস সাত্তার পলাতক রয়েছেন। তাকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে বলেও জানান ওসি।