বাউফলে পূর্বের জেরধরে এক রাতে দুই ঘর লুট

সঞ্জয় ব্যানার্জী, দশমিনা-বাউফল প্রতিনিধি: পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার আদাবাড়ীয়া ইউনিয়নের ০৩ নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ লক্ষীপাশা গ্রামে আয়নালী আকন বাড়িতে পূর্বের শত্রুতার জের ধরে বৃহস্পতিবার রাতে দুই ঘর লুট হয়েছে বলে জানায় মোঃ লাল মিয়া আকন।

ঘটনাস্থানে উপস্থিত স্থানীয়রা জানায় পূর্বের শত্রুতাকে কেন্দ্র করে আদাবাড়ীয়া ইউনিয়নের ০৩নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ লক্ষীপাশা গ্রামের আকন বাড়ী নামকস্থানে বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) দিবাগত রাত সাড়ে সাতটার সময় সন্ত্রাসী নাসির, বসির,আলাম আকন, ইব্রাহিম, রুবেল, জহির সহ ১০/১২জন জাকারিয়া ও রাসেল আকন, নামক তার ঘরের সামনে এসে বলে, জাকারিয়া, রাসেল তোরা ঘর থেকে বের হয়, তোদেরকে বানাবো বলে ঘরের সামনে , বগি দা, শাবল,লাঠি, চার্জার লাইট, নিয়ে ঘরের দরজা ভেঙ্গে ঘরে ঢুকে ভাংচুর করে, ঘরে থাকা স্টীলের সুকেচ থেকে (এক লক্ষ্য বিশ হাজার) টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে যায়, বলে জানায় লাল মিয়া আকন, এবং পরিবারের সদস্যদেরকে এলোপাথাড়ি পিটাতে থাকে।

পরে স্থানীয়রা বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মোস্তাফিজুর রহমানকে জানায় , তিনি বলেন বগা তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ যাবে ঘটনা নিয়ান্তনে থাকবে হামলাকারী নাসির, বসির,ও আলামের পরিবারের সদস্যরা জানান, আমরা একই বাড়ির মানুষ আমরা তাদের কোন মারধর করিনি বরং এ তারা দা বটি লাঠি নিয়ে আমাদের উপর হামলা করেছে। আমাদের ঘর ভাংচুর করেছে আমাদের লোকজন আহত অবস্থায় বাউফল হাসপাতালে ভর্তি আছে।

হামলাকারী বসিরের পরিবারের সদস্যরা জানান আমরা একই বাড়ির মানুষ, পূর্বে ওদের সাথে কাজের টাকা নিয়ে জগড়া জাটি হয় , মিমাংসা হয়, ২৫জুন বৃহস্পতিবার বসির পটুয়াখালী কাজ করে , কাজ শেষ করে বাড়ীতে ফেরার সময়, জাকারিয়ার শশুর বাড়ী জৈনকাঠী কাটাখালী , এবং বসিরকে কাটাখালী বসে জাকারিয়ার শশুর বাড়ির লোকজন, মারধর করে, এর কারনেই এই ঘটনা ঘটে, স্থানীয় ইউপি সদস্য সেরাজ মোল্লা , ইউপি সদস্য মন্নান, হাফেজ হাওলাদার , হানিফ শিকদার ঘটনা শুনে ঘটনাস্থানে যায় এবং মিমাংসা কথা বলেন দুই পক্ষ মিমাংসা একমত দেন এ বিষয়ে বাউফল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন এখনও কোন অভিযোগ পাইনি। পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।