বাউফলে ডাকাতি সংঘটিত ২০ লাখ টাকার মালামাল লুট

সঞ্জয় ব্যানার্জী দশমিনা-বাউফল প্রতিনিধি: পটুয়াখালীর বাউফল কেশবপুর ইউনিয়নের কেশবপুর গ্রামের প্রকৌশলী মশিউর রহমান সোহেল চৌধুরীর বসত ঘরে দুধর্ষ ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে। রবিবার দিবাগত রাত ২টার সময় এ ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতরা নগদ টাকা, স্বর্ণালংকারসহ প্রায় ২০ লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। সোহেল চৌধুরী জানান, তিনি ঢাকায় রাজউকে প্রকৌশলী পদে চাকুরী করেন। তার স্ত্রী শাহনাজ পারভিন কয়েকদিন আগে ঢাকা চলে আসেন।

এসময় তার স্ত্রী বাড়িতে তার ভাই শাহ আলম মুন্সীকে রেখে আসেন। ঘটনার দিন রাত ২টার সময় ১৫-২০ জন অস্ত্রধারী ডাকাত তার বসত ঘরের সামনে ও পিছনের দরজা ভেঙ্গে ভিতরে ডুকে শাহ আলম মুন্সীর হাত পা বেধে আলমারি ভেঙ্গে ২০ ভড়ি স্বণার্লংকার, নগদ ৫৬ হাজার টাকা, দুইটি ল্যাপটপসহ প্রায় ২০ লাখ টাকার মালামাল নিয়ে যায়। ওই বাড়িতে আর কোন বসত ঘর না থাকায় ডাকাতরা লুটপাট শেষে নির্বিঘ্নে চলে যায়। শাহ আলম মুন্সী জানান, ১৫-২০ জন ডাকাত ঘরে ডুকেন।

তিনি ডাক চিৎকার দেয়ার চেষ্টা করলে ডাকাতদের মধ্যে কয়েকজন তাকে কিলঘুষি মারে। এরপর হাত, পা ও মুখ বেধে ফেলে। ডাকাতদের মধ্যে ৩-৪ জন ছাড়া বাকিরা মুখোশ পরা ছিলেন। তাদেরকে তিনি চিনতে পেরেছেন। সকালে প্রতিবেশী কয়েকজন লোক এসে তাকে উদ্ধার করেন। বাউফল থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন,‘ এ বিষয়টি আমি জানার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।