বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক আরও মজবুত করার তাগিদ হাসিনা-মোদির

বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী পর্যায়ে শীর্ষ বৈঠক আজ বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় শুরু হয়েছে। তবে এই বৈঠক সামনাসামনি হচ্ছে না। বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ অব্যাহত থাকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মধ্যে আলোচনাটি হচ্ছে ভার্চ্যুয়ালি।
বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক আরও মজবুত করার তাগিদ দিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদি। ঢাকা-দিল্লি সম্পর্কের অগ্রগতির ধারার প্রশংসা করেন শেখ হাসিনা। নরেন্দ্র মোদি জানান, বাংলাদেশের সাথে সম্পর্ককে সমসময় গুরুত্ব দেয় ভারত। এসময় চিলাহাটি-হলদিবাড়ি রেল সংযোগ পুনরায় উদ্বোধন করেন দুই প্রধানমন্ত্রী। এর আগে সকালে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় ঢাকা-দিল্লি ৭টি সমঝোতা স্মারক সই।
এক ফ্রেমে দুই দেশের জাতির পিতা। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মহাত্মা গান্ধির ওপর নির্মিত ডিজিটাল প্রদর্শনীটির উদ্বোধন হলো দু দেশের প্রধানমন্ত্রীর হাত ধরে।
বৃহষ্পতিবার সকালে ভার্চুয়াল কনফারেন্সে যুক্ত হন শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদি। এসময় উদ্বোধন করা হয় চিলাহাটি-হলদিবাড়ি রেল সংযোগের যা পুনরায় চালু হলো অর্ধ শতাব্দির বেশী সময় পর।
বক্তব্যে নরেন্দ্র মোদি করোনা সংকটকালে দু দেশের সহযোগীতার বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। জানান, বাংলাদেশের সাথে সম্পর্ককে সমসময় গুরুত্ব দেয় ভারত।
শেখ হাসিনা ঢাকা-দিল্লি সম্পর্কের অগ্রগতির ধারার প্রশংসা করেন। তুলে ধরেন সম্পর্ক বৃদ্ধির নানা দিক।
এর আগে সকালে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে বিদ্যুত, বাণিজ্য, বন, জলবায়ু, পরিবেশ ও কৃষি খাত নিয়ে সই হয় ৭ টি সমঝোতা স্মারকের।