বাঁশখালীতে টর্চ লাইটটের আলোকে কেন্দ্র করে এক বৃদ্ধাকে মাথা ফাটিয়ে গুরুতর আহত

মোহাম্মদ এরশাদ, বাঁশখালী প্রতিনিধিঃ চট্টগ্রাম জেলার বাঁশখালী উপজেলার শীলকুপ ইউনিয়নের চাম্বল-শীলকূপ সীমান্ত এলাকায়

শীলকূপ ৬নং ওয়ার্ডের খতিমা পুকুর পাড় রফিক কোম্পানির বিল্ডিংয়ের নিচ তলায় মোক্তার সওদাগরের দোকানের সামনে

গতকাল ৩০ মার্চ ২০২১ মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬ টা ৩০ মিনিটের দিকে এই ঘটনা ঘটে। জানা যায়,

স্থানীয় খতিমা পুকুর পাড় রফিক কোম্পানির বিল্ডিংয়ের দিকে টর্চ লাইটটের আলো রফিক কোম্পানির বিল্ডিংয়ে দিকে ছুড়ে মারাকে

কেন্দ্র করে এই ঘটনার সূত্রপাত হয়। আরও জানা যায়, মোস্তাফা আলী উক্ত বিল্ডিংয়ের মহিলা আছে ঔ দিকে কেন আলো জ্বলাচ্ছ বললে।

পরে ঘাতক তারেখকে বৃদ্ধা মোস্তাফা আলী আলো জ্বালাতে বাধা প্রধান করিলে একা পর্যায়ে কথা কাটাকাটি হয়।

পরে ঘাতক তারেখ বৃদ্ধা মোস্তাফা আলীর মাথায় আঘাত করে পালিয়ে যায়। আহত ব্যক্তি হলেন,

বাশঁখালীর শীলকূপ ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের মৃত আতর আলীর পুত্র মোস্তাফা আলী। প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়,

তিনি দীর্ঘদিন যাবৎ এলাকায় ত্রাস সৃষ্টি করে আসতেছে। ভয়ে তেমন কেউ কথা বলার সাহস পায় না। স্থানীয় শীলকূপ ৬ নং ওয়ার্ডের চৌকিদার,

আব্দুল মালেক বলেন, ঘটানাটি ঘটার পর আমি ঘাতক তারেখকে প্রায় ৩শ ফুট মতো দৌড়ায়, পরে সে পালিয়ে যায়।

পরে আমি আহত মোস্তাফা আলীকে উদ্ধার বাঁশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসি।

সেই সাথে বাঁশখালী থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি)কে ফোন দিয়ে বিষয় টি জানানো হয়।স্থানীয় সূত্রে জানা যায়

ঘাতক তারেখের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা ও রয়েছে। ঘাতক তারেখ হলেন, বাঁশখালী থানাধীন শীলকূপ ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের

দেলোয়ার হোসেন এর পুত্র মোহাম্মদ তারেখ (২৩)। উক্ত ঘটনা নিয়ে পুরো এলাকা জুড়ে চলছে আতঙ্ক।

সেই সাথে কেউ কেউ আবার এই ঘটনা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন বলে জানা যায়। এ বিষয়ে বাঁশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)

শফিউল কবিরের সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন, তিনি আরো বলেন

আহত ব্যক্তির পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় একটি লিখিত ডাইরি করা হয়েছে,তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান।