বরিশালে তিনজন করোনায় আক্রান্ত; একজনের মৃত্যু

খোকন আহম্মেদ হীরা, গৌরনদী প্রতিনিধি: বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে তিনজন রোগির করোনা পরীক্ষায় পজেটিভ এসেছে।

এরমধ্যে একজন পুরুষ চিকিৎসক, একজন মেডিকেল ছাত্র, অপরজন বরগুনা জেলার বাসিন্দা। চিকিৎসক আক্রান্ত হওয়ায় সাধারণ চিকিৎসকদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পরেছে।

শুক্রবার দিবাগত রাতে হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ মোহাম্মদ বাকির হোসেন তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তিনজনের মধ্যে আক্রান্ত বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজের এক ছাত্র (২৪) রয়েছে। তার বাড়ি গৌরনদী উপজেলায়। সে গত বুধবার কুমিল্লা থেকে তার বাড়ি গৌরনদীতে আসে।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, আক্রান্ত চিকিৎসক গৌরনদীর দক্ষিণ বিজয়পুর এলাকার ভাড়াটিয়া ও আগৈলঝাড়া উপজেলা হাসপাতালে দায়িত্বরত ছিলেন এবং তার স্ত্রী একই উপজেলার বাকাল ইউনিয়ন উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রের নারী চিকিৎসকও এর আগে করোনায় আক্রান্ত হন। ডাক্তার দম্পত্তি শেবাচিম হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তৃতীয় ব্যক্তি ৭২ বছরের বৃদ্ধ বরগুনার বেতাগী উপজেলার ফুলতলা এলাকার বাসিন্দা।

তিনি পরীক্ষার আগেই শুক্রবার সন্ধ্যায় শেবাচিমের করোনা ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। রাতে তার পরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়ার পর জানা গেছে তিনি করোনায় আক্রান্ত। গত ১৬ এপ্রিল দুপুরে ওই বৃদ্ধ শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি হন।

এর আগে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে শেবাচিমের করোনা ওয়ার্ডে পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার বাসিন্দা ৪০ বছর বয়সের এক নারী চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। এনিয়ে শেবাচিমের করোনা ওয়ার্ডে গত ১০ দিনে পাঁচজন রোগীর মৃত্যু হয়েছে। বর্তমানে করোনা ইউনিটে ২৩ জন রোগি ভর্তি রয়েছে যার মধ্যে পাঁচজনের রিপোর্ট পজেটিভ।

সবমিলিয়ে বরিশাল জেলায় মোট ১৭ জনের দেহে করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে। যারমধ্যে দুইজন চিকিৎসক ও দুইজন নার্সও রয়েছেন।