বন্যার পানি কমে গেলেও নিম্মঞ্চালে এখনো পানি বন্দি রয়েছে কয়েক হাজার পরিবার

মো: শামীম হোসেন, জামালপুর জেলা প্রতিনিধি: জামালপুরে বন্যার পানি কমার সাথে সাথে অধিকাংশ পরিবার বাড়ীতে ফিরে গেছে। তবে নিন্মাঞ্চলের নদী তীরবর্তি গ্রামগুলোর ঘর বাড়ী সড়ক থেকে সর্ম্পূন পানি সরে যেতে সময় লাগছে। ফলে পানিতে নিমজ্জিত হয়ে আছে কয়েক হাজার ঘরবাড়ি।

অভিযোগ উঠেছে সরকারী ত্রাণ সহায়তা অনেক পরিবারকে বাদ দিয়ে বিতরণ করা হচ্ছে । দুর্গত এলাকায় খাদ্য সংকটে আছে অনেক অসহায় পরিবার। বন্যার পানি কমে গেলেও নিম্মঞ্চালে এখনো পানি বন্দি রয়েছে কয়েক হাজার পরিবার । জেলার বেশির ভাগ সড়কের পানি সরে গেলেও গ্রামীন কাচা ও আধা পাকা সড়ক পানিতে তলিয়ে আছে।

এখনো এখানকার পাকা সড়কে ইঞ্জিন চালিত নৌকা চলছে। বন্যার পানিতে তলিয়ে থাকা প্রায় ১৫ হাজার হেক্টর ফসলের মাঠ, মাছের পুকুর, ১৫০ কিলো মিটার সড়ক, ব্রীজ , ৩৯১টি গ্রাম। জেলা ত্রাণ ও পূর্নবাসন কর্মকর্তা মোঃ নায়েব আলী জানান, বন্যার পানিতে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে ৮৫ হাজার৭৪৭টি পরিবারে ৩ লাখ ৯৬ হাজার ৭৯৭ হাজার মানুষ।

ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে ৩৯১টি গ্রামের ৬হাজার ৬৬২টি ঘর বাড়ি। বন্যা কবলিত এলাকায় বরাদ্দ হয়েছে ৫৮৪ মেট্রিকটন চাল ও নগদ ১৩লাখ ৫০হাজার টাকা ও দুই হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার। খাদ্য বাবদ ২লাখ টাকা ।