বগুড়ার দুপচাঁচিয়া খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ১০ বস্তা চাল ও ভটভটি জব্দ

নিয়াজ মোর্শেদ নাইম, দুপচাঁচিয়া (বগুড়া): গতকাল মঙ্গলবার বিকেল ৫ টার দিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এস এম জাকির হোসেন এ অভিযান পরিচালনা করেন। উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় বাসিন্দা সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় প্রভাবশালী আব্দুর রহমান ,সিদ্দিক এর অর্থায়নে তাজমহল চাল কিনে সাইদুলের বাড়িতে এবং পোওতা উত্তরপাড়া গ্রামের নিজ বাড়ি সংলগ্ন নিজস্ব ভটভটিতে ওএমএসের চাল মজুত করে রেখেছেন এমন তথ্যের ভিত্তিতে উপজেলা থানা-পুলিশের সহযোগিতায় বিকেল ৫ টার দিকে অভিযান চালান ইউএনও এস এম জাকির হোসেন ।

অভিযানে সাইদুল এর বাড়ি থেকে ৪ বস্তা চাল এবং উপজেলার পোওতা উত্তরপাড়া গ্রামের তাজমহল এর বাড়ি সংলগ্ন নিজস্ব ভটভটিতে থেকে আরও ৬ বস্তা ওএমএসের চাল ও ভটভটি জব্দ করা হয়। কিন্তু তাজমহলকে আটক করতে পারেনি পুলিশ। স্থানীয় লোকজনের অভিযোগ, ডিলার আব্দুল হাকিম আওয়ামী লীগের প্রভাব খাটিয়ে ওএমএসের ডিলার হন অতচ তিনি একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এর প্রফেসর ।

গত সোমবার ও গতকাল মঙ্গলবার পোওতা বাজারে ওএমসের পণ্য বিক্রয়কেন্দ্রে চাল বিক্রির কার্যক্রম চলছিল। গতকাল সকাল থেকেই স্থানীয় লোকজন কাধে করে বিক্রয়কেন্দ্র থেকে চাল সরাতে দেখেন। স্থানীয় লোকজন বিষয়টি ইউএনওকে জানান। ডিলার আব্দুল হাকিম জানান তিনি এ ঘটনার কিছুই জানেন নাহ, অথচ চাল কেনা বেচা হয় তার গোডাউন এর ২০ গজ এলাকার মধ্যে ।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এস এম জাকির হোসেন জানান গুনাহার ইউনিয়নের ওএমএসের পণ্য সাইদুল এর বাড়ি ও তাজমহল এর নিজ বাড়ি সংলগ্ন নিজস্ব ভটভটিতে ১০ টি বস্তায় মোট ৩০০ কেজি চাল ও ভটভটি জব্দ করা হয়েছে। চাল ও ভটভটি থানায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা করা হবে।