বক্সার মাইক টাইসনের গাঁজা বেচে মাসে ৪ কোটি টাকা আয়

তিনি পেশায় ছিলেন একজন বক্সার। পৃথিবীর নামকরা কয়েকজন বক্সারের মধ্যে তিনি ছিলেন অন্যতম। অ্যাডভেঞ্চার সিনেমার মতো তার চলার পথ। জীবনে প্রচুর অর্থকড়ি কামিয়েছেন। সেসব অর্থবিত্ত তাকে সময়মতো ছেড়েও গেছে। তার নাম মাইক টাইসন। এই কিংবদন্তি বক্সার এবার গাঁজার ব্যবসা করে বাজিমাত করলেন। তার অর্থনৈতিক জীবনের উত্থান-পতনের মধ্যে যুক্ত হলো নতুন একটি ব্যাপার। তা হলো তিনি প্রতি মাসে গাঁজা বিক্রি করেই আয় করেন বাংলাদেশি টাকায় প্রায় চার কোটি টাকা। ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য ডেইলি স্টার ইউকের প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে এর বিস্তারিত।

টাইসন ক্যারিয়ারে আয় করেছিলেন ৫৮ কোটি ৪০ লাখ ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় ৪ হাজার ৯৫০ কোটি টাকারও বেশি। সেখান থেকেই এক সময় তিনি দেউলিয়া হতে বসেছিলেন। তবে গাঁজার ব্যবসায় ভাগ্য ফিরেছে তার। তিনি এখন পুরোদস্তুর গাঁজাচাষি ও ব্যবসায়ী।

তিনি এককালে পরিচিত ছিলেন আয়রন ম্যান হিসেবে তবে ধর্ষণ আর মাদক মামলায় জেল খাটার পর তাকে ‘দ্য ব্যাডেস্ট ম্যান অন দ্য প্লানেট’ হিসেবেও আখ্যা দেওয়া হয়। টাইসনের এই গাঁজা কোম্পানির নাম টাইসন র‍্যাঞ্চ। ক্যালিফোর্নিয়ায় গাঁজা চাষ বৈধ বলে কোনো আইনি ঝামেলাও পোহাতে হচ্ছে না আলোচিত সাবেক এই বক্সারকে।

টাইসন প্রতিষ্ঠিত গাঁজা চাষের কোম্পানির নাম ‘টাইসন র‍্যাঞ্চ’। এবার আর বেআইনি কিছু করছেন না তিনি। কারণ ১৬ হেক্টর জমির ওপর গড়ে ওঠা গাঁজার ফার্মটি যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায়। এই রাজ্যে গাঁজার ব্যবহার বৈধ। নিজেকে তিনি সেরা গাঁজার প্রস্তুতকারক দাবি করেছেন। তার উৎপাদিত গাঁজা তিনি নিজেও পরখ করে দেখেন বলেও জানা গেছে।