ফের বিএসএফের নির্বিচারে গুলি, ৩ বাংলাদেশি নিহত

চব্বিশ ঘন্টার ব্যবধানে লালমনিরহাটের পর এবার নওগাঁ সীমান্তে তিন বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা করেছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)।

আজ (বৃহস্পতিবার) ভোরে উপজেলার দুয়ারপাল সীমান্ত এলাকার ২৩১/১০(এস) মেইন পিলারের নীলমারী বীল এলাকায় ভারতের ক্যাদারীপাড়া ক্যাম্পের বিএসএফ জওয়ানরা ঘটনাটি ঘটিয়েছে বলে জানাগেছে। তবে বর্ডার গার্ড অব বাংলাদেশ (বিজিবি) একজন নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এলাকাবাসী জানায়, বুধবার রাতে বেশ কয়েকজন যুবক ভারতের অভ্যন্তরে অবৈধভাবে গরু নিতে প্রবেশ করে। তারা গরু নিয়ে বাংলাদেশে ফেরার পথে আজ (বৃহস্পতিবার) ভোর রাতে পোরশার উপজেলার দুয়ারপাল সীমান্ত এলাকার ২৩১/১০(এস) মেইন পিলারের নীলমারী বীল এলাকায় ভারতের ক্যাদারীপাড়া ক্যাম্পের বিএসএফ জওয়ানরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। এ সময় অন্যরা পালিয়ে হলেও  তিন বাংলাদেশী যুবক গুলিবিদ্ধ হয়। বাংলাদেশের ২০০ গজ অভ্যন্তরে গরু ব্যবসায়ী মফিজুল ইসলামের মরদেহ পড়ে ছিল। আর গরু ব্যবসায়ী রজনিত কুমার ও কামাল হোসেন (৩২) এর মরদেহ ভারতের ৮০০ গজ অভ্যন্তরে পড়ে ছিল বলে জানা গেছে।

এর আগে বুধবার (২২ জানুয়ারি) লালমনিরহাটের হাতিবান্ধা সীমান্তে দুই বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা করে বিএসএফ। বুধবার ভোরে উপজেলার গুতামারী ইউনিয়নের বনচৌকি সীমান্তে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- আমঝোল গ্রামের শাহাজান আলীর ছেলে সুরুজ (৩৮) এবং একই গ্রামের উসমান আলীর ছেলে সুরুজ (১৭)। তারাও ভারত থেকে গরু নিয়ে ফেরার পথে বিএসএফের গুলিতে তারা নিহত হয়েছেন।