ফরিদগঞ্জকে করোনামুক্ত রাখতে সেনাবাহিনীর টহল দোকান খুলে রাখায় ৪ ব্যবসায়ীর দন্ডাদেশ 

মোহাম্মদ বিপ্লব সরকার, চাঁদপুর প্রতিনিধি: সরকারি আদেশ অমান্য করে অপ্রয়োজনীয় দোকান খুলে রাখার অভিযোগে চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ বাজারে আজ রোববার দুপুরে ভ্রাম্যমান আদালতে ৪ ব্যবসায়ীর মোট সাড়ে ১১ হাজার টাকা অর্থদন্ড দেয়া হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শিউলী হরির নির্দেশে এই অভিযান করা হয়েছে। পরিচালিত এই ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার সময় ফরিদগঞ্জ উপজেলার সহকারি কমিশনার (ভুমি) শারমিন আক্তারের সাথে সেনাবাহিনী ও পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এ দিকে দেশে চলমান পরিস্থিতিতে জনস্বার্থে সামাজকি দুরুত্ব বজায় রেখে বিনাপ্রয়োজনে ঘর থেকে বের না হতে সেনাবাহিনী সদস্য মাইকে ব্যপক প্রচার করা ছাড়াও উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজারে সেনাবাহিনীর কঠোরনজরদারি সহ ব্যপক টহল চলছে।

সংশ্লিষ্ট সুত্র জানায়, দেশে চলমান পরিস্থিতিতে জনস্বার্থে সরকারী প্রশাসনের ঘোষিত লক ডাউন অমান্য করে অপ্রয়োজনে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খুলে রাখে। সরকারী আদশে অমান্য করে খুলে রাখা দোকানগুলোতে নিত্য প্রয়োজনীয় পন্য বিক্রি করার দোকান নয়। অপ্রয়োজনে দোকান খুলে রাখায় অহেতুক মানুষের ঝটলা বেঁধে রাখে। এমন খবর পেয়ে ভাম্যমান আদালত ফরিদগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ী মিজানের ৩ হাজার, শাহাদাতের ৫ হাজার, নূর হোসেনের ৫শ ও এমরান ভুঁইয়ার ৩ হাজার টাকা জরিমানার দন্ডাদেশ দিয়েছে।

এ নিয়ে ভ্রাম্যমান আদালতের ম্যাজিষ্ট্রেট শারমিন আক্তার এ প্রতিনিধিকে বলেন, সরকারি নির্দেশ অমান্য করে অপ্রয়োজনীয় দোকান খোলা রাখায় সরকারি দন্ডবিধির ১৮৬০ এর ২৬৯/২৭০ ধারামতে ৪ ব্যবসায়ীর মোট ১১ হাজার ৫শ টাকা র জরিমানার দন্ডাদেশ দেয়া হয়েছে। জনস্বার্থে এই অভিযান অব্যহত থাকবে।