ফতুল্লায় কিশোরী ধর্ষণ: ধর্ষক কে পালিয়ে যেতে সহযোগীতা

সফিকুল ইসলাম জনি,ফতুল্লা: নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় কাশিপুর খিল মার্কেট এলাকায় ১৪ বছরের কিশোরী ধর্ষণের ঘটনায় কাশীপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আনিসুর রহমান শ্যামল তার নিজ অফিস কক্ষে বিচার-শালিশী বসিয়ে ধর্ষণের ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা চালায় এবং ধর্ষক কে পালিয়ে যেতে সহযোগীতা করেন বলে অভিযোগ করেন মামলার বাদী।

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ ধর্ষক তুর্জ সহ যুবলীগ নেতাকে আটক করেন পুলিশ। মঙ্গলবার দুপুরে গ্রেফতারের খবর পেয়ে সংবাদকর্মীরা সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে যুবলীগ নেতা শ্যামলের সহযোগীরা থানার ভেতরেই সংবাদকর্মীদের উপর অর্তকীত হামলা চালায়।

ভিডিও চিত্র ধারনে বাধা প্রদান করে এবং ক্যামেরা ভাঙ্গচুর করে। এসময় আহত হন আমাদের চ্যানেল এস এর ফতুল্লা প্রতিনিধি সফিকুল ইসলাম জনি। ৭১ বাংলা টেলিভিশনের ফতুল্লা প্রতিনিধি মেহেদী হাসান রাসেল সহ অন্যান সংবাদকর্মীরা। সংবাদকর্মীদের উপর হামলার ঘটনায় ৫ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত ১০ থেকে ২০ জনকে অভিযুক্ত করে গতকাল রাতে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।