প্রধানমন্ত্রী বরাবর বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক সমাজের স্মারকলিপি পেশ

সুমন পাল, মাধবদী (নরসিংদী) প্রতিনিধিঃ সারাদেশে করোনা পাদুর্ভাবে কিন্ডারগার্টেন, বেসরকারি স্কুল কলেজের সাময়িক বেকার ও অসহায় শিক্ষকদের স্বার্থের দাবি নিয়ে গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবরে মানবিক আবেদন সম্বলিত এক স্মারক লিপি প্রদান করেন বাংলাদেশের একমাত্র বেসরকারি শিক্ষকদের সংগঠন “বাংলাদেশ বেসরকারি শিক্ষক সমাজ”।

সংগঠনের পক্ষে আহবায়ক এম. মাহামুদুল হাসান ও যুগ্ম আহবায়ক সালাহউদ্দিন হিমেল উক্ত স্মারকলিপি নরসিংদী জেলা প্রশাসক ও নরসিংদী জেলার আভ্যন্তরিন করোনা প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন কে মাধ্যম করে তাঁর পক্ষে জেলার এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্যাট ও এনডিসি মো: শাহরুখ খান এর কাছে আনুষ্ঠানিক ভাবে হস্তান্তর করেন।

স্মারক লিপিতে সারাদেশে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত শিক্ষক শিক্ষিকার দুর্দশা ও হতাশার কথা উল্লেখ করা হয়। গত মার্চ মাস থেকে করোনার প্রভাবে দেশে স্কুল কলেজ বন্ধ ঘোষনা হওয়ার পর থেকে এসব শিক্ষকরা পড়েছে বেহাল অবস্থায়। বেসরকারি কিন্ডারগার্টেন ও স্কুল কলেজ সমূহে নামমাত্র বেতনের পাশাপাশি এসব শিক্ষকদের উপার্জনের একমাত্র মূল উৎস প্রাইভেট টিউশনি। করোনায় সারা দেশে স্কুল কলেজ বন্ধ ঘোষনা হওয়ার সাথে সাথে বন্ধ হয়ে যায় তাদের এসব উপার্জনের পথও। সেই সাথে বেকার হয়ে পড়ে সারাদেশে বেসরকারি স্কুল কলেজ সমূহের সাথে জড়িত প্রায় ১০ লক্ষ শিক্ষক পরিবারের প্রায় ৫০ লক্ষ মানুষ।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবরে লিখিত এ স্মারকলিপিতে শিক্ষকরা তাদের মানবেতর জীবন যাপনের সাথে দেশের শিক্ষা ব্যবস্থার অগ্রসরতার তুলনা দিতে গিয়ে বলেন, বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষানীতিকে বাস্তবায়ন করতে গিয়ে তারা তাদের সেরা দক্ষতার পরিচয় দিতে সদা প্রাণবন্ত রয়েছে। সরকার তাদের এ দুরবস্থার সময়ে তাদের পাশে থেকে তাদের জন্য একটি মানসম্মত টেকশই ব্যাবস্থা করে দিবেন বলে তারা আশা প্রকাশ করেন।

এ ছাড়াও বর্তমান সরকারের বিভিন্ন কর্মসূচীকে তারা যুগোপযোগি ও জনবান্ধব বলে এ স্মারকলিপিতে উল্লেখ করেন। তাদের বিশ্বাস, সারা দেশে শিক্ষা ব্যবস্থাকে মান সম্মত ও বিশ্বমানের করে তুলতে হলে বেসরকারি শিক্ষকদের মান উন্নয়নের কোন বিকল্প নেই।