প্রতিশোধের পতাকা’ উত্তোলন করেছে ইরান

বাগদাদে মার্কিন বিমান হামলায় বিপ্লবী গার্ডের কুদস্ বাহিনীর প্রধান মেজর জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যার প্রতিবাদে ‘প্রতিশোধের পতাকা’ উত্তোলন করেছে ইরান।সোলেইমানি নিহত হওয়ার ঘটনায় তিনদিনের শোকের প্রথম দিন শনিবার এ লাল পতাকা ওড়ানো হয়।

শিয়াদের পবিত্র নগরী ক্বোমের প্রখ্যাত জামকারান মসজিদের মিনারে এই লাল ঝান্ডা ওড়ানোর মুহূর্ত প্রচারিত হয় রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে। শিয়া সংস্কৃতিতে লাল পতাকার অর্থ- অন্যায়ভাবে রক্তক্ষরণ এবং যার রক্তক্ষরণ হয়েছে তার জন্য প্রতিশোধ নেয়ার আহ্বান। পতাকাটি যখন কোমের মসজিদে উত্তোলন করা হয়, তখন মসজিদ থেকে বক্তারা আহ্বান করেন, ‘হে আল্লাহ, আপনার রক্ষাকারীকে পুনরায় উপস্থিত করুন।

এক সপ্তাহ ধরে উত্তেজনা চলছিল যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের মধ্যে। গত ২৭শে ডিসেম্বর ইরান-সমর্থিত সশস্ত্র গোষ্ঠী পপুলার মোবিলাইজেশন ফোর্সেসের (হাশদ আল-শাবি) শাখা কাতায়েব হিজবুল্লাহর রকেট হামলায় মার্কিন এক ঠিকাদার নিহত হন। তার দু’দিন পর যুক্তরাষ্ট্র আল-শাবির ঘাঁটিতে হামলা চালিয়ে ২৫ জনকে হত্যা করে।

এর প্রতিবাদে আল-শাবির সদস্যরা মিছিল নিয়ে বাগদাদের গ্রিন জোনেস ঢুকে মার্কিন দূতবাসে হামলা-ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে। তারপর শুক্রবার ভোরে বাগদাদ বিমানবন্দরে হামলা চালিয়ে জেনারেল সোলেইমানি ও আল-শাবির উপ-প্রধানসহ আটজনকে হত্যা করে যুক্তরাষ্ট্র।