পূর্বাচলে স্থায়ী প্রদর্শনীকেন্দ্র হচ্ছে: বাণিজ্যমন্ত্রী

চলতি বছরের মাঝামাঝিতে মে মাসে পূর্বাচলে নিজস্ব স্থায়ী প্রদর্শনীকেন্দ্রে পেয়ে যাবেন বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। তাঁর আশা, আগামী বছর থেকে পূর্বাচলে সুন্দর পরিসরে এধরনের প্রদর্শনীর আয়োজন করতে পারবেন। এখনকার মতো ৪/৫টি ক্যামপাসে যেতে হবে না।

বুধবার (১৫ জানুয়ারি) ইন্টারন্যামনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় বাংলাদেশ গার্মেন্টস এক্সেসরিজ অ্যান্ড প্যাকেজিং ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স এসোসিয়েশন কর্তৃক আয়োজিত তৈরি পোশাক শিল্পপণ্যের চারটি আন্তর্জাতিক প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, দেশের অর্থনীতিতে পোশাকশিল্প বিশাল অবদান রেখেছে। ৪৫ লাখ লোকের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছে। রফতানি পণ্যের ৮৪ শতাংশ এ খাত থেকেই আসে। এ খাতে বর্তমানে যে সংকট চলছে সেটা সাময়িক। তবে আমাদের টিকে থাকতে হবে। এই টিকে থাকতে সরকার বিভিন্ন ধরনের সহায়তা করে যাচ্ছে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা চাই সারা বছরজুড়ে আমাদের নিজস্ব স্থায়ী প্রদর্শনীকেন্দ্রটি ব্যবহার হোক। একই সঙ্গে আগামী বছর থেকে আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার স্থায়ী প্রদর্শনীকেন্দ্রে করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তার আগে আমি চাই সারা বছর আপনাদের মতো প্রতিষ্ঠানগুলো সেখানে এধরনের প্রদর্শনীর আয়োজন করুক।

এসময় বিজিএমইএ সভাপতি রুবানা হক বলেন, গার্মেন্ট খাত ভালো নেই। এটা বলতে ভালো না লাগলেও বলতে হয়। গত ৬ মাসে এ খাত ভালো করেনি। এসময়  ৭ দশমিক ৬৪ শতাংশ নেগেটিভ গ্রোথে আছি। সাড়ে ১০ ভাগ কোয়ান্টিটি কমে গেছে। গত ৬ মাসে ৬৯ টা কারখানা বন্ধ হয়ে গেছে। ৩২ হাজার ৯শত জন চাকরি হারিয়েছে। একই সঙ্গে ৫৩ টি নতুন কারখানা হয়েছে। আমরা অনেকে না বুঝে এ ব্যবসায় চলে এসেছি ও আসছি।