পাসপোর্টে নাম পরিবর্তন করেছেন কিয়ারা

‘কবির সিং’ সুপারহিট হওয়ায় তুমুল আলোচনায় কিয়ারা আদভানি। সিনেমাপ্রেমীদের মাঝে নিজেকে এক অন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন এই অভিনেত্রী। ‘কবির সিং’-এ  শহীদ কাপুরের সঙ্গে তার রসায়ন দেখার মতো ছিল।

কিয়ারার আসল নাম আলিয়া সেটি আগেই বলেছিলেন তিনি। প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার ‘আনজানা আনজানি’ ছবি থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে নিজের নাম পরিবর্তন করেছিলেন। ২০১৪ সালে নিজের অভিষেক সিনেমা থেকেই নাম পরিবর্তন করেছেন কিয়ারা। তিনি চাননি দর্শক আলিয়া ভাটের সঙ্গে তাকে মিলিয়ে ফেলুক। কারণ আলিয়া ভাট জনপ্রিয় একজন তারকা। একই নামে দুইজন অভিনেত্রী ইন্ডাস্ট্রিতে থাকলে দর্শকরা হয়তো বিভ্রান্ত হতে পারেন।

এবার ন্যাশনাল আইডি ও পাসপোর্টেও পারিবারিক নাম পরিবর্তন করবেন বলে জানান কিয়ারা। কারণ হিসেবে কিয়ারা জানান, যখন আমাকে এক দেশ থেকে অন্য দেশে যাওয়ার বিমান ধরতে হয়, তখন বিমানবন্দরে পাসপোর্টসহ অন্যান্য তথ্য দেখে চেকিংয়ের দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তারা প্রশ্ন করেন, আপনি কিয়ারা নন? তো এতে ভীষণই সমস্যা হয়। এছাড়া বিভিন্ন ক্ষেত্রে নামের জন্য আজকাল সমস্যা হচ্ছে। তাই খুব শিগগিরই আমি আমার ন্যাশনাল আইডি ও  পাসপোর্টে নাম পরিবর্তন করতে চলেছি। তবে আলিয়া নামটাকে একেবারে মুছে ফেলবো এমনটাও নয়, মিডল নেম হিসাবে এটাকে রেখে দেবো। বাকিটা সব জায়গায় কিয়ারা আদভানি থাকবে।

‘কলঙ্ক’ ছবিতে নাচের পারদর্শিতা তার হাতে বেশ কিছু কাজ এনে দিয়েছে কিয়ারাকে। তিনি ‘গুড নিউজ’, ‘লক্ষ্মী বম্ব’, ‘ইন্দ্র কি জায়ানি’, ‘শেরশাহ’র মতো ছবিগুলোতে কাজ করেছেন।