পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশে দুই ট্রেনের সংঘর্ষে ৩০ জন নিহত

পাকিস্তানের সিন্ধু প্রদেশে দুই ট্রেনের সংঘর্ষে ৩০ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ৯৮ জন। তবে হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

সোমবার (০৭ জুন) ভোরে ঘোটকি জেলার ধারকি শহরের কাছে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। খবর আল জাজিরার।

স্থানীয় এক কর্মকর্তা রাজ্জাক মিনহাস আল জাজিরাকে জানায়, করাচি থেকে সারগোদা যেতে থাকা মিল্লাত এক্সপ্রেসটি ভোরে ধারকি শহরের কাছে এসে লাইনচ্যুত হয়।

তখন ট্রেনটির ১৩-১৪টি বগি পাশের আরেকটি লাইনে উঠে যায়। ওই সময় রাওয়ালপিন্ডি থেকে ছেড়ে আসা

স্যার সৈয়দ এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঘটনাস্থলে পৌঁছালে মিল্লাত এক্সপ্রেসের লাইনচ্যুত বগিগুলোর সঙ্গে সংঘর্ষ হয়।

রাইতি রেলওয়ে স্টেশনের আগে এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুই ট্রেনের বগিগুলোতে আটকা পড়া যাত্রীদের উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

রেলওয়ে মুখপাত্র জানান, উদ্ধারকারী ট্রেন ঘটনাস্থলের উদ্দেশে রওনা হয়েছে। ইতোমধ্যে পুলিশ ও স্থানীয় প্রশাসন উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

করাচি, সুক্বুর, ফয়সালাবাদ এবং রাওয়ালপিন্ডিতে যাত্রীদের জন্য হেল্পলাইন সেন্টার খোলা হয়েছে।

এদিকে এ ঘটনার পর টুইট বার্তায় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান জানান, ‘রেলমন্ত্রীকে ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের চিকিৎসা এবং মৃতদের পরিবারের জন্য সহায়তা নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে।

এছাড়া রেলের নিরাপত্তা ত্রুটির বিষয়ে তদন্তের আদেশ দেওয়া হয়েছে। ’