পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচন ও ফল ঘোষণা পরবর্তী সহিংসতায় নিহত ১০

পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচন ও ফল ঘোষণা পরবর্তী সহিংসতায় কমপক্ষে ১০ জন মারা গেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এ নিয়ে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ শুরু হয়েছে দলগুলোর মধ্যে।

রাজ্যবাসীকে শান্তি বজায় রাখার আহবান জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। আর বিজেপি সহিংসতার জন্য তৃণমূল কংগ্রেসকে দায়ী করছে।

দিল্লি থেকে কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে প্রতিবেদন চাওয়া হয়েছে রাজ্য প্রশাসনের কাছ থেকে।

এর আগে রোববার ভোট গণনায় তৃণমূল কংগ্রেস ২১৩টি আসনে জয় পেয়ে তৃতীয়বারের মতো পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতায় বসছে।

তবে এবারের নির্বাচনের শুরু থেকেই বিজেপি ও তৃণমূল কংগ্রেসের মধ্যকার চরম বিরোধ উত্তাপ ছড়িয়েছে।

নির্বাচন চলাকালেও কয়েকটি জায়গায় সহিংসতা ও হতাহতের ঘটনা ঘটেছিলো।

তারই জের ধরে রোববার ভোট গণনা শেষ হওয়ার পরপরই রাজ্যের বিভিন্ন জায়গার পরিস্থিতি সহিংস হয়ে উঠে।

এদিন বিকেল থেকে সোমবার রাত পর্যন্ত এ সব সহিংসতায় অন্তত দশ জন নিহত হয়েছে বলে সরকারি সূত্রগুলো বলছে।

বেশ কিছু জায়গা থেকে বোমাবাজি, ভাংচুর ও লুটতরাজের খবর পাওয়া গেছে। এর মধ্যে পাঁচ জনকে বিজেপি তাদের কর্মী বা সমর্থক দাবি করেছে।

আর তৃণমূল বলছে তাদের চার জন্য এবং ইন্ডিয়ান সেক্যুলার ফোর্স বা আইএসএফ বলছে তাদেরও একজন নিহত হয়েছে প্রতিপক্ষের হামলায়।

এ বিষয়ে মমতা বলেছেন, যদিও আমরা জানি বিজেপি ও কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা বাহিনী অনেক অত্যাচার করেছে। তাও আমাদের শান্তি বজায় রাখতে হবে।

অপরদিকে পশ্চিমবঙ্গ বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন, এতো বিপুল সমর্থন নিয়ে তৃণমূল জিতেছে তারপরেও কেন হিংসা।

পুলিশের সামনে আগুন, লুটতরাজ হচ্ছে কিন্তু পুলিশ কিছু বলছে না।