পদ্মা নদীতে নৌকা ডুবির ঘটনায় তৃতীয় দিনের মত উদ্ধার অভিযানে ডুবুরি দল

সৈয়দ মাসুদ , সিনিয়র প্রতিনিধিঃ রাজশাহীর পদ্মা নদীতে নৌকা ডুবির ঘটনায় আজ দুপুর দেড়টার দিকে ১২ বছরের রুবাইয়া আক্তার স্বর্ণার মরদেহ উদ্ধার করেছে ডুবুরি’র একটি দল। আজ রোববার সকালে তৃতীয় দিনের মত উদ্ধার অভিযান শুরু করে ডুবুরি দল। এ পর্যন্ত পদ্মা নদীতে নৌকা ডুবির ঘটনায় ৭জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এখনো কনেসহ দুই জন নিখোঁজ রয়েছেন। তাদের খোঁজ না পাওয়া পর্যন্ত অভিযান চলবে বলে জানিয়েছেন দমকল বাহিনীর সিনিয়র স্টেশন অফিসার আব্দুর রউফ।
এসময় তিনি জানান, আজ সকাল সাড়ে ১০টার দিকে অভিযান কালে দ্বিতীয় নৌকার সন্ধান পাওয়া গেছে। সেটি উদ্ধারও করা হয়েছে। এখনো কনেসহ দু’জনের কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি।
এদিকে, শনিবার উদ্ধার পাঁচজনের লাশ পরিবারের কাছে হ্স্তান্তর করা হয়। রাতে তাদের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিহতদের পরিবারকে ২০ হাজার টাকা করে দেয়া হয়েছে। নৌকা ডুবির প্রকৃত ঘটনা অনুসন্ধানে গতকাল রাজশাহী জেলা প্রশাসনের পক্ষ একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। বর্তমানে তদন্ত কমিটি’র দলটি ঘটনা অনুসন্ধানে কাজ শুরু করেছে।
গত শুক্রবার সন্ধ্যায় বৌভাতের অনুষ্ঠান শেষে ফেরার পথে চরখিদিরপুর-শ্রীরামপুর এলাকায় দুই নৌকা ডুবে যায়। পরে বালুবাহী একটি নৌকা মোট ১৭ জনকে উদ্ধার করে। এদের মধ্যে পাঁচজনকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির পর মারা যায় শিশু মরিয়ম (৫)। বাকিরা সাঁতার কেটে পাড়ে উঠে আসলেও কনেসহ আটজন নিখোঁজ হন। তাদের মধ্যে শনিবার পাঁচজনের ও আজ দুপুরে এক জনের লাশ পাওয়া যায়। নিখোঁজ আছেন, কনে সুইটি খাতুন পুর্ণিমাসহ দুই জন।