নড়াগাতি থানা যুবদলের নবগঠিত কমিটিতে স্বজনপ্রীতি; প্রতিবাদে ঝাড়ু–মিছিল ও প্রতিবাদ সভা

মো: হাচিবুর রহমান, কালিয়া (নড়াইল) প্রতিনিধি: নড়াইলের কালিয়া উপজেলার নড়াগাতি থানার নবগঠিত থানা যুবদলের কমিটিতে আত্মীয়করনের প্রতিবাদে ঝাড়ু–মিছিল ও প্রতিবাদ সভা করেছে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

শনিবার রাতে থানার টোনা গ্রামে ঘন্টাব্যাপি জেলা বিএনপির সভাপতি বিশ্বাস জাহাঙ্গির আলম ও জেলা যুবদলের সভাপতি মশিউর রহমার এর বিরুদ্ধে এ প্রতিবাদ সভা ও ঝাড়–মিছিল হয়। এ সময় নবগঠিত থানা যুবদলের আহবায়ক সৈয়দ মিজানুর রহমানের কুশপত্তলিকা দাহ করে।

বিএনপির নেতৃবৃন্দ সূত্রে জানা যায়, জেলা যুবদলের সভাপতি মশিউর রহমান ও সাধারন সম্পাদক রুবেল নড়াগাতি থানা যুবদলেন আহবায়ক কমিটি ঘোষনা করেন সৈয়দ মিজানুর রহমান কে আহবায়ক করে। মিজানুর বিএনপি রাজনিতীতে কখনোই ছিল না।

সে থানা যুবদলের আহবায়ক এর অযোগ্য বলে তারা দাবি করেন। ঝাড়–মিছিল ও প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন, খাসিয়াল ইউনিয়ন যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক সুমন, সেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক হাসিকুল বিশ্বাস, বড়দিয়া কলেজ ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক সুজন, ওয়ার্ড বিএনপির সাধারন সম্পাদক বাদশা মৃধা প্রমুখ।

এ সময় বক্তারা অনতিবিলম্বে থানা যুবদলেন আহবায়ক কমিটি থেকে সৈয়দ মিজানুর রহমান কে বাদ দিয়ে নতুন কমিটি ঘোষনা করার আহবান করেন এবং জেলা বিএনপির সভাপতি বিশ্বাস জাহাঙ্গির আলম কে তার খালাত ভাই মিজানকে আহবায়ক করে গোপনে জেলা যুবদলের সভাপতিকে দিয়ে কমিটি ঘোষনা করানোর জন্য তাকে ক্ষামা চাইতে বলেন।

অন্যদিকে যে সমস্ত নেতৃবৃন্দ দলের দুর্দিনে হামলা, মামলা ও ক্ষতির সম্মুখিন হয়েছে গোপনে কমিটি করায় তাদের মধ্যে ক্ষুদ্দ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে বলে বক্তারা জানান। পরে নবগঠিত কমিটির আহবায়ক সৈয়দ মিজানুর রহমানের কুশপত্তলিকা দাহ করে বিএনপির নেতৃবৃন্দ।