নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরীর সাথে চসিক প্রশাসকের সাক্ষাত সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস দিলেন প্রতিমন্ত্রী

মোঃরাশেদ, চট্টগ্রাম প্রতিনিধিঃ নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী (এমপি)’র সাথে ঢাকায় সচিবালয়ে তাঁর অফিস কক্ষে সাক্ষাৎ করেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক আলহাজ্ব মোহাম্মদ খোরশেদ আলম সুজন।

স্বাক্ষাতকালে প্রশাসক বলেন চট্টগ্রামের ভৌগলিক অবস্থানের সবচেয়ে বড় বেনিফিসিয়ারি হচ্ছে চট্টগ্রাম বন্দর, আর চট্টগ্রাম বন্দরের সবচেয়ে বড় বেনিফিসিয়ারি হচ্ছে দেশের অর্থনীতি। জাতীয় অর্থনীতি সচল রাখছে এ বন্দর। বন্দরের সক্ষমতা, প্রবৃদ্ধি, উন্নয়ন ধরে রাখার জন্য দরকার বন্দরনগরীর সার্বিক উন্নয়ন। এছাড়া চসিকের ৮০০ কোটি টাকার বেশি দেনা শোধ, নগরের ভাঙা সড়কগুলো সংস্কার এবং মশার ওষুধ কেনার জন্যও চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের তহবিল থেকে আর্থিক সহায়তা কামনা করেন চসিক প্রশাসক। তাছাড়া চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন এবং চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ যৌথ ওয়ার্কিং কমিটি গঠন করে কিভাবে বন্দর নগরীর উন্নয়ন করা যায় সে ব্যাপারে মন্ত্রীর প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ কামনা করেন তিনি।

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী অত্যন্ত আন্তরিকতার সাথে হৃদ্যতাপূর্ণ পরিবেশে চসিক প্রশাসকের বক্তব্য শুনেন। তিনি চসিক প্রশাসকের সাম্প্রতিক কর্মকান্ডের উৎসাহব্যঞ্জক প্রশংসা করেন। তিনি আশা প্রকাশ করেন চসিক প্রশাসকের কর্মকান্ডে চট্টগ্রাম নগরী তাঁর হারানো ঐতিহ্য ফিরে পাবে।

এছাড়া চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন এবং চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ কিভাবে যৌথ ওয়ার্কিং কমিটির মাধ্যমে কর্মকান্ড পরিচালনা করবে তার একটি রূপরেখা ঠিক করার জন্য বন্দর কর্তৃপক্ষকে প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা প্রদান করবেন। তাছাড়া আইন, কানুন, বিধি এবং অর্থমন্ত্রণালয়ের অনাপত্তি সাপেক্ষে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনকে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী।