নৌকা ও ঘোড়া মার্কার দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীদের মধ্যে হামলা

বরগুনার বামনা উপজেলার ২নং ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সোনাখালী নামক বাজারে নৌকা ও ঘোড়া মার্কার দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীদের মধ্যে প্রায় পাঁচ ঘন্টাব্যাপী পাল্টা পাল্টি হামলার ঘটনা ঘটে।

এসময় স্বতন্ত্রপ্রার্থী সোহেল সিকদারের ভবনের নিবার্চনী অফিস থেকে নৌকার সমর্থকদের ওপর কমপক্ষে ২০টি ককটেল নিক্ষেপের ঘটনা ঘটে,

এতে ঘটনাস্থলে আহত হয় ২৫ জন। বরগুনা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মহরম আলীর নেতৃত্বে, পুলিশ ও ডিবির যৌথ অভিযানে

পিস্তলসহ বোমা ও বোমা তৈরীর সরঞ্জাম উদ্ধার, গ্রেফতার হয়েছে বিশ জন।

বরগুনা পুলিশ সুপার জাহাঙ্গির মল্লিক, বুধবার(৩১ মার্চ) দুপর ১টায় বামনা উপজেলার সোনাখালী বাজারের বামনা-পাথরঘাটা মহাসড়কে।

প্রায় ৫টা পর্যন্ত চলে ককটেল নিক্ষেপের ঘটনা। স্বতন্ত্রপ্রার্থীর নিবার্চনী ওই ভবনটিতে ডিবি পুলিশ ও পুলিশের সদস্যরা অভিযান চালিয়ে

বিপুল পরিমান বোমা তৈরীর সারঞ্জাম, বেশ কয়েকটি অবিস্ফোরিত ককটেল, ধারালো চাকু, একটি পিস্তল ও এক ম্যাকজিন গুলি উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় সোহেল সিকদারের ভবন থেকে দুই স্বতন্ত্রপ্রার্থীসহ ২০জনকে আটক করে পুলিশ।