নোয়াখালীতে করোনা ভাইরাসে ৩ জনের মৃত্যু, লকডাউন অমান্য করায় ৭০টি গাড়ী আটক

হাসান ইমাম রাসেল, নোয়াখালী প্রতিনিধি: নোয়াখালীতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ৩ জনের মৃত্যু ও নতুন করে ৭৩ জন করোনা সনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট মৃত্যু-৩৩ জন ও আক্রান্ত -১১৭৪ জন ও সুস্থ হয়ে বাড়ী ফিরে গেছেন ২৫৭ জন।
বৃহস্পতিবার ১১ই জুন সকাল ১১ টায় বিষয়টি মুঠোফোনে নিশ্চিত করেছেন জেলা সিভিল সার্জন মোমিনুর রহমান।

তিনি বলেন, গত ৮ ও ৯ই জুন তাদের শরীরের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা জন্য আব্দুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজে ও নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (নোবিপ্রবি) করোনা ল্যবে পাঠানো হয়। পরে ১০ই জুন রাতে তাদের রিপোর্ট আসলে তাতে করোনা পজিটিভ আসে।
আক্রান্তদের মধ্যে বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ রয়েছেন। তাদের মধ্যে ৫১ জনকে মাইজদী শহীদ ভুলু স্টেডিয়ামে স্থাপিত অস্থায়ী করোনা ভাইরাস হাসপাতালের আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। ৮৩৩ জন নিজ নিজ বাড়ীতে চিকিৎসা সেবা নিচ্ছেন। সুস্থ-২৫৭ ও মৃত্যু-৩৩ জন।

নোয়াখালীর করোনা আক্রাস্তে সংখ্যা উপজেলা ভিত্তিক তথ্য: বেগমগঞ্জে সর্বোচ্চ- ৪৮১ জন,সদরে-৩৪১জন, চাটখিলে-৮৩জন, সোনাইমুড়ীতে-৬২জন, কবিরহাটে-৮৩জন, কোম্পানীগঞ্জে-১৪ জন, সেনবাগে-৬৭ জন, হাতিয়া-৯ জন ও সুবর্ণচরে-৩৪ জনসহ মোট জেলায়- ১১৭৪ জন আক্রান্ত।
সামাজিক দুরুত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি না মানায় করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার বেড়ে যাওয়ায় জেলা প্রশাসন ৯ই জুন থেকে ২৩শে জুন পর্যন্ত সদর উপজেলা ৩য় ও বেগমগঞ্জ উপজেলায় ৪র্থ দফা লকডাউন ঘোষনা করে।

রাস্তায় চেকপোস্ট বসিয়ে সর্তক অবস্থানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। ইতিমধ্যে লকডাউন অমান্য করে রাস্তায় গাড়ী চালানোর অপরাধে ৭০টি গাড়ী আটক করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বেগমগঞ্জ থানার ভারপাপ্ত কর্মকর্তা হারুনুর রশীদ চৌধুরী ।
প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে সরকারের নির্দেশনা মাঠে নেমেছে প্রশাসন।
পাশাপাশি কাজ করছে সেনাবাহিনীও।