নেত্রকোনায় ২০বছরের জন্য ৫শত শিশুর সেবার দায়িত্বে নিয়োজিত কম্পেশন ইন্টারন্যাশনাল

 জাহাঙ্গীর আলম, নেত্রকোণা প্রতিনিধি: নেত্রকোনায় ৫শত শিশুর ২০বছরের সেবার দায়িত্ব নিলেন কম্পেশন ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ। করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে ত্রাণ বিতরণ করা হয়। ‘মধ্য ও দক্ষিণ বাংলাদেশ শিশু উন্নয়ন প্রকল্প, কুলপতাক’এর অন্তর্গত সকল পরিবারকে চাল, ডাল, আলু, ময়দা, তেল ও নগদ টাকা ইত্যাদি প্রদান করা হয়। উল্লেখ্য যে “কম্পেশন ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ”প্রকল্পের আওতায় ১৭৫ জন শিশুকে প্রতিমাসের খাদ্য, শিক্ষা ও চিকৎসা খরচ প্রদান করছে।
২০২০ ইং জুলাই মাস থেকে প্রকল্পটির কার্যক্রম শুরু হয়। বিশাল এই প্রকল্পের সাথে সম্পৃক্ত হতে পেরে অত্র এলাকার অনেক গরীব ও অসহায় পরিবার উপকৃত হচ্ছে। মোট ৫০০ শিশু এ প্রকল্পের আওতায় ২০ বছর সেবা পাওয়ার কথা রয়েছে। ২০ বছর পর ৫০০ দরিদ্র শিশু উচ্চ শিক্ষিত হয়ে দেশের সেবায় নিয়োজিত হবে। এ প্রকল্পের আওতায় আরো বেশী শিশু সুযোগ পেলে এলাকাবাসী আরও উপকৃত হবে।
এলাকাবাসী এমন একটি প্রোগ্রাম পেয়ে খুবই আনন্দিত ও উচ্ছ্বসিত। প্রকল্প ম্যানেজার তিমুতি ক্লিনটন মুখুটি জানান এলাকাবাসী, স্থানীয় প্রশাসন ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের সহযোগিতায় প্রকল্পটি সঠিকভাবে পরিচালিত হচ্ছে। তিনি আরও জানান সুন্দরভাবে এই প্রোগ্রামটি পরিচালনা করতে পারলে প্রকল্পটি দীর্ঘস্থায়ী প্রকল্পে রূপ পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তাই তিনি ধর্ম-বর্ণ পরিবার নির্বিশেষে সকলের সহায়তা চেয়েছেন।
ত্রান বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, সুয়াইর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারমান কামরুল হাসান সেলিম, আ:লীগ নেতা মো: বজলুর রহমান চৌধুরী, শিক্ষক প্রলয় সরকার, আদর্শ নগর তদন্ত কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুভাশীষ গাঙ্গুলী, ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য প্রনয় সরকার, বিধু ভূষণ মজুমদার, জেমসন দাস, রানা ডি. মজুমদার, রবিনসন দাস, মিল্টন মজুমদারসহ স্থাণীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।