নেত্রকোণা পৌরসভা নির্বাচন: প্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ চলছে, ভোটারদের প্রত্যাশা সুষ্ঠু নির্বাচন

জাহাঙ্গীর আলম,নেত্রকোণা প্রতিনিধিঃ ডিসেম্বরেই হতে পারে নেত্রকোণা পৌরসভার নির্বাচন। তাই মেয়র পদে সম্ভাব্য প্রার্থীরা দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশায় কেন্দ্রিয় নেতাদের দৃষ্টিআকর্ষন করতে জোর লবিং চালিয়ে যাচ্ছেন।

ঘুরছেন ভোটারদের দ্বারে দ্বারেও। পিছিয়ে নেই কাউন্সিলর পদপ্রার্থীরাও। আসন্ন ভোট যুদ্ধে অবতীর্ণ হতে যাচ্ছেন বাড়ি বাড়ি, ভোটারদেরকে বুঝিয়ে শুনিয়ে নিজের পাল্লা শক্তিশালী করতে চালিয়ে যাচ্ছেন তোড়জোর। এদিকে ভোটাররাও এবার যেন একটু নড়ে চড়ে বসেছেন। তাদের প্রত্যাশা সৎ, নিষ্ঠাবান, পরিশ্রমী প্রতিনিধি নির্বাচন।

সব মিলিয়ে বেশ জমে উঠেছে নেত্রকোণা পৌর এলাকার নির্বাচনী মাঠ। গত ২০১৫ সালের ৩০ ডিসেম্বর নেত্রকোণা পৌরসভার নির্বাচন সম্পন্ন হয়। নিয়মানুযায়ী এ বছরের ডিসেম্বর মাসে মেয়াদ শেষ হবে এবং অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা নির্বাচন। তাই এই নির্বাচনকে সামনে রেখে সম্ভাব্য মেয়র, সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা করোনা পরিস্থিতির কারণে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ভোটারদের সাথে কুশল বিনিময় এবং খোঁজ খবর নিচ্ছেন।

মহামারি করোনাকালীন সময় কেউ কেউ বাড়ি বাড়ি গিয়ে ত্রাণ বিতরণ করছেন। প্রার্থীদের কেউ কেউ জনগণের কল্যানে কাজ করে যাচ্ছেন দীর্ঘদিন যাবৎ আবার কিছু দুধের মাছিও রয়েছেন। এদিকে মনোনয়নের প্রত্যাশায় কেন্দ্রের সাথে লবিং করছেন সরকার ও বিরোধী দলের মনোনয়ন প্রত্যাশীরা। জানা গেছে, বর্তমান পৌর মেয়র ও জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক(১) নজরুল ইসলাম খান,

জেলা আওয়ামীলীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক গাজী মোজাম্মেল হোসেন টুকু, মহিলা বিষয়ক সম্পাদীকা অর্পিতা খানম সুমি, জেলা আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য দেওয়ান হাফিজ উদ্দিন অপল, বীর মুক্তিযোদ্ধা অসিত সরকার সজল, জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক মাসুদ খান জনিসহ প্রায় ডজন খানেক নেতা সরকার দলের মনোনয়ন প্রত্যাশী হয়েছেন।

অপরদিকে বিএনপি দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশায় এখন পর্যন্ত দুজনের নাম শোনা যাচ্ছে- তারা হলেন, জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক এসএম মনিরুজ্জামান দুদু ও জেলা যুবদলের সহ-সভাপতি আব্দুল্লাহ্ আল মামুন খান রনি। প্রায় ৬৮হাজার ভোটারের এই পৌরসভায় প্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ যখন তুঙ্গে তখন ভোটারদের প্রত্যাশা যোগ্য মেয়র নির্বাচন।

সঠিক লোকের হাতে পৌরসভার দ্বায়িত্ব তুলে দিতে চান তারা। তাই যাচাই-বাছাই করে যাকে দিয়ে পৌর এলাকার সার্বিক উন্নয়ন সম্ভব হবে তাকেই নির্বাচিত করতে চান পৌর এলাকার ভোটাররা। নেত্রকোণা পৌরসভার সার্বিক উন্নয়নে একজন যোগ্য মেয়র নির্বাচিত করতে একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের বিকল্প নেই বলে মনে করেন সাধারণ ভোটাররা। এমতাবস্থায় একটি অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ নির্বাচন ব্যবস্থার মাধ্যমে সঠিক ব্যক্তিকে নির্বাচিত করার সুযোগ দিবে নির্বাচন কমিশন এমনটাই প্রত্যাশা ভোটারদের।