নেত্রকোণায় আওয়ামী লীগ নেতার কার্যালয় ভাংচুর

জাহাঙ্গীর আলম,নেত্রকোণাঃ নেত্রকোণার কেন্দুয়ায় দলীয় অভ্যন্তরীণ কোন্দলে উপজেলা আওয়ামী লীগের এক নেতার কার্যালয় ভাংচুরের অভিযোগ উঠেছে যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে। বুধবার রাতে কেন্দুয়া পৌর শহরের কোর্ট রোডে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হুমাযূন কবীর চৌধুরীর ব্যাক্তিগত কার্যালয় ভাংচুর হয়।

হুমায়ূন চৌধুরী ৩০ নভেম্বর উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হয়ে হেরে যান। জয়ী হন পৌরসভার মেয়র আসাদুল হক ভুইয়া। হুমাযূন কবীর চৌধুরীর অভিযোগ করে বলেন, সম্মেলনে নির্বাচনে প্রার্থী হওয়া নিয়ে প্রতিপক্ষ তৈরী হয়।

এরই জেরে রাতে কার্যালয়ের তালা ভেঙ্গে উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মোস্তাফিজউর রহমান বিপুলের নেতৃত্বে ৩৫ থেকে ৪০ জন হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। অফিসে থাকা চেয়ার টেবিল, আলমিরা, টেলিভিশনসহ অন্যান্ন আসবাবপত্র ভাংচুর করে। উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মোস্তাফিজউর রহমান বিপুলের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

কেন্দুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) হাবিবুল্লাহ খান বলেন, যুবলীগের কিছু নেতা-কর্মীরা এই ভাংচুর করেছে। বিষয়টি জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অবহিত আছেন। ঘটনাস্থলের সিসিটিভির ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। হুমায়ূন কবীর চৌধুরী এখনও অভিযোগ দেননি। অভিযোগ দিলে মামলা নেওয়ার পাশাপাশি প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।