নেত্রকোণার বারহাট্টায় সরকারী সিদ্ধান্ত না মানায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে বিশ হাজার টাকা অর্থদণ্ড

মামুন কৌশিক, বারহাট্টা প্রতিনিধিঃ সারা দেশের ন্যয় নেত্রকোণায় করোনা সংক্রমণের হার দিনের পর দিন বৃদ্ধিই পাচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে নেত্রকোণা জেলাকে আবারও লক ডাউন ঘোষণা করেন জেলা প্রশাসক মঈনউল ইসলাম।

নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস পত্রের দোকান ব্যতীত সব দোকান সম্পূর্ণরূপে বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন তিনি।একই সাথে জরুরী প্রয়োজন ছাড়া কেউ নিজ বাড়ির বাইরে বের না হওয়ারও নির্দেশ দেওয়া হয়। নিত্য প্রয়োজনীয় দোকানপাট সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৪ পর্যন্ত খুলে রাখতে বলা হয়।

কিন্তুু বারহাট্টা উপজেলাতে লক ডাউনের বিধি নিষেধ অনেক জায়গাতেই মানা হচ্ছিল না। তাই আজ ২০ মে ২০২০ তারিখ বাজার মনিটরিং করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট গোলাম মোরশেদ। এ সময় উপজেলার গোপালপুর বাজার এবং বাউসী বাজারে সরকারের সিদ্ধান্ত না মেনে কাপরের দোকান খোলা রেখে বিক্রয় করতে দেখা গেলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ভ্রাম্যমাণ আদালতে “দন্ডবিধি ১৮৬০ এর ২৬৯ ধারায়” মোট ০৫ টি মামলায় পাঁচ ব্যবসায়ীকে ২০,০০০/- (বিশ হাজার) টাকা অর্থদণ্ড করেন। এ সময় সাথে ছিলেন বারহাট্টা থানার অফিসার ইন চার্জ মিজানুর রহমান সহ প্রমুখ।

এ বিষয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট গোলাম মোরশেদ বলেন, আজ বারহাট্টা উপজেলার গোপালপুর বাজার এবং বাউসী বাজার ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়েছে। করোনা সংক্রমণ রোধে আমাদের এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। আপনারা সবাই সরকারের সিদ্ধান্ত মেনে চলুন। সবাই নিজ ঘরে থেকে বের না হয়ে নিজেরা সুস্থ থাকুন আর অন্যদেরকেও সুস্থ রাখতে সহায়তা করুন।