নারায়ণগঞ্জে রোগী দেখার সময় ভূয়া ডাক্তারকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব

সোহেল রানা, নারায়নগঞ্জ প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে মা হসপিটাল এন্ড ল্যাবে রোগী দেখার সময় ভুয়া ডাক্তারকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন বেসরকারী হাসপাতালে রোগী দেখে চিকিৎসার নামে প্রতারণা করে আসছিল এ ডাক্তার। এসময় তার কাছ থেকে ৯ রোগীর আল্ট্রাসনোগ্রাম রিপোর্ট, রোগী দেখার কাজে ব্যবহৃত ০১টি স্ট্রেথেস্কোপ, রোগী দেখার কাজে ব্যবহৃত ০১টি স্পেনোমিটার, ০১টি মনিটর, ০১টি সিপিইউ, ০১টি প্রিন্টার ও ০১টি কিবোর্ড উদ্ধার করা হয়।

বৃহষ্পতিবার দুপুরে র‌্যাব-১১ এর অধিনায়ক লে.কর্ণেল ইমরান উল্লাহ সরকার স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়। এর আগে বুধবার রাতে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার হাজী ইব্রাহীম খলিল শপিং কমপ্লেক্সে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত ভুয়া ডাক্তারের নাম মো. সোলায়মান মোল্লা(৩৮)। প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়, গ্রেফতারকৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ ও প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায়, মো. সোলায়মান মোল্লা এর বাড়ি রাজবাড়ী জেলার সদর থানাধীন গোপালপুর এলাকায়।

সে দীর্ঘদিন ধরে নিজেকে এমবিবিএস ডাক্তার, কনসালট্যান্ট ও সনোলজিস্ট হিসেবে পরিচয় দিয়ে নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন হাসপাতালে রোখী দেখে আসছে। একইভাবে গতকাল নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন হাজী ইব্রাহীম খলিল শপিং কমপ্লেক্সে অবস্থিত মা হসপিটাল এন্ড ল্যাব এ নিজেকে এমবিবিএস ডাক্তার পরিচয় দিয়ে চেম্বারে রোগীদের প্রেসক্রিপশন দেয়া অবস্থায় র‌্যাবের আভিযানিক দল তাকে হাতেনাতে গ্রেপ্তার করে।

র‌্যাবের অভিযানিক দল নিবন্ধনকৃত চিকিৎসক হিসেবে তার বিএমএন্ডডিসি কর্তৃক রেজিস্ট্রেশন নম্বর দেখতে চাইলে এমবিবিএস ডাক্তারী সনদপত্র ও বিএমডিসি কর্তৃক রেজিস্ট্রেশন নম্বর দেখাতে পারেনি। সে এমবিবিএস ডাক্তার না হয়েও দীর্ঘদিন ধরে ভুয়া ডাক্তার হিসেবে মা হসপিটাল এন্ড ল্যাবসহ নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন বেসরকারী হাসপাতালে রোগী দেখে চিকিৎসার নামে প্রতারণা করে আসছে।

উল্লেখ্য, গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ সোলায়মান মোল্লা ভূয়া ডাক্তার পরিচয়ে রোগী দেখার অপরাধে ইতোঃপূর্বে র‌্যাব-১১ কর্তৃক গত ০২ জুলাই ২০১৯ তারিখে গ্রেফতার করা হয়েছিল। গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়েছে।