নাটোরে চাঞ্চল্যকর মিতা হত্যা মামলার মূল আসামী গ্রেফতার

সাজেদুর রহমান, নাটোর প্রতিনিধিঃ নাটোর শহরের চকরামপুর এলাকার জেনারেল হাসপাতাল নামে একটি বেসরকারী হাসপাতালের নারী ব্যবস্থাপক মিতা খাতুন হত্যার মুল হোতা হাসপাতাল মালিক আব্দুল আজিজ মোল্লাকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব।

বুধবার রাতে র‍্যাব-৫ এর একটি দল ওই হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে আব্দুল আজ্জিক মোল্লাকে গ্রেফতার করে। সে দীর্ঘদিন ধরে পলাতক ছিল। গ্রেফতারকৃত আব্দুল আজিজ মোল্লা ওই হাসপাতালের সত্বাধিকারী ও সদর উপজেলার দত্তপাড়া গ্রামের মৃত আস্তান আলী মোল্লার ছেলে।

সিপিসি-২, র‍্যাব-৫ নাটোর ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার, এএসপি মোঃ মাসুদ রানা আজিজকে গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার রাতে চকরামপুর এলাকার জেনারেল হাসপাতালে অভিযান চালায় র‍্যাবের একদল সদস্য। হাসপাতাল ভবনের ৪ তলা থেকে হাসপাতালের সত্বাধিকারী ও মিতা খাতুন হত্যার মুল আসামী আব্দুল আজিজ মোল্লাকে গ্রেফতার করা হয়।

উল্লেখ্য ২০১৮ সালের ১৪ ডিসেম্বর জেনারেল হাসপাতালের ৫তলার একটি কক্ষ থেকে ক্যাশ ব্যবস্থাপক ও রিসিপশনিষ্ট মিতা খাতুনের গলাকাটা মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। এব্যাপারে দায়েরকৃত মামলায় আব্দুল আজিজ মোল্লাকে মুল আসামী করা হলে তিনি পলাতক থাকেন।

জেলা দায়রা জন আদালত মামলার এজাহারে মিতা খাতুনকে হত্যার সুস্পষ্ট অভিযোগ থাকায় হাসপাতালের সত্বাধিকারী আব্দুল আজিজ মোল্লার বিরুদ্ধে একাধিক ওয়ারেন্ট জারি করেন। ওই মামলা দায়েরের পর থেকে আব্দুল আজিজ মোল্লা দীর্ঘদিন ধরে পলাতক ছিলেন।