নাটোরে গুরুদাসপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে শিশু চুরি

 সাজেদুর রহমান, নাটোর প্রতিনিধিঃ চিকিৎসা নিতে আসা এক নারীর দুই মাসের কন্যা শিশু চুরির ঘটনা ঘটেছে। বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ভিডিও ফুটেজে এক নারীকে শনাক্ত করলেও তাকে আটক করতে পারেনি পুলিশ। চুরি যাওয়া শিশু তায়েবার মা শিমা বেগম এবং বাবা তৌফিজ মোল্লা।

তাদের বাড়ি উপজেলার মশিন্দা ইউনিয়নের মাছপাড়া গ্রামে। শিমা বেগম বলেন, আমার তিন ছেলে মেয়ে। গত দুই মাস আগে তায়েবার জন্ম। ঠান্ডা জনিত রোগের চিকিৎসা নিতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসেছিলাম। চিকিৎসা নিয়ে হাসপাতালের বারান্দায় দাঁড়ালে অজ্ঞাত এক নারী তায়েবাকে কোলে নিতে চায়। পরে তার কোলে দিয়ে আমি টয়লেটে যাই। ফিরে এসে বাচ্চাসহ তাকে আর খুজে পাইনি।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মোজাহিদুল ইসলাম বলেন, আমাদের স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সিসি ক্যামেরার আওতা ভুক্ত। ইতিপূর্বে এ ধরণের কোন ঘটনা ঘটেনি। আশা করি দ্রুত সময়ের মধ্যে ওই শিশুকে খুঁজে পাওয়া যাবে। গুরুদাসপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ভিডিও ফুটেজে অজ্ঞাত ওই নারীকে শনাক্ত করা সম্ভব হয়েছে। পুলিশ বিভিন্ন জায়গায় খোজাখুজি করছে। আশা করি দ্রুত সময়ের মধ্যে ওই শিশুটিকে উদ্ধার করতে পারবো।