নাটোরে আবারও বন্যার আশংকা, দেড় হাজার হেক্টর জমির ফসল তলিয়ে গেছে

সাজেদুর রহমান, নাটোর প্রতিনিধিঃ নাটোরে নদ নদীর পানি নতুন করে বৃদ্ধি পাওয়ায় প্রায় দেড় হাজার হেক্টর জমির রোপা আমন ধান ও সবজি সহ অন্যান্য ফসল পানিতে তলিয়ে গেছে। কেবল সিংড়া উপজেলার ১২ টি ইউনিয়নের ১১ টিতে ৯৯৯ হেক্টর জমির রোপা আমন ধান সহ অন্য ফসল পানিতে নিমজ্জিত হয়েছে।

এর মধ্যে রোপা আমন ৯৭০ হেক্টর ,সবজি ২৭ হেক্টর ও মাসকালই ২ হেক্টর। এছাড়া নলডাঙ্গা উপজেলার ৩০১ হেক্টর ও সবজি ৭ হেক্টর এবং গুরুদাসপুর উপজেলায় ৩ হেক্টর জমির রোপা আমন ধান পানিতে তলিয়ে গেছে। তৃতীয়বারের মতো ভারীবর্ষন আর উজানের ঢলে জেলার নদনদীগুলোতে নতুন করে পানি প্রবেশ করছে। এতে করে নিন্মাঞ্চল প্লাবিত এবং আবাদি জমিতে পানি প্রবেশ করছে।

সিংড়ার আত্রাই ও নলডাঙ্গার বারনই নদীর পানি বেড়ে আবারো ফুলে ফেপে উঠায় নিম্নাঞ্চল প্লাবিত ও আবাদী ফসলের ক্ষতির আশংকা করছে কৃষি বিভাগ। জেলা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের উপপরিচালক সুব্রত কুমার সরকার ফসলহানির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নতুন করে ভারীবর্ষন আর উজানের পানিতে সিংড়া পয়েন্টে আত্রাই নদীর পানি বিপদ সীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

এই নদীর বেশ কিছু ভাঙ্গন এলাকা দিয়ে ফসলি জমিতে পানি প্রবেশ করেছে। সিংড়া উপজেলার ১২ ইউনিয়নের মধ্যে ১১টি ইউনিয়নের বেশ কিছু এলাকায় রোপা আপন সহ ৯৯৯ হেক্টর জমির ফসল পানিতে নিমজ্জিত হয়েছে। এই ধারা অব্যাহত থাকলে ব্যাপকহারে আবাদি ফসল ক্ষতি হওয়ার আশংকা রয়েছে বলে জানান তিনি।

নাটোর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নিবাহর্ী প্রকৌশলী আল আসাদ জানান,নতুন করে পানি বৃদ্ধির কারনে আত্রাই নদীর সিংড়া পয়েন্টে পানি বিপদ সীমার ৫৩ সেঃমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।