নাটোরের লালপুরে দলীয় কর্মসুচীতে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষিত, শংকিত এলাকাবাসী

সাজেদুর রহমান, নাটোর প্রতিনিধিঃ নাটোরের লালপুরে ক্ষমতাসীন দলের কর্মসুচীতে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষিত হচ্ছে। দলের বিভিন্ন কর্মসুচীসহ স্থানীয় সংসদ সদস্যের অনুষ্ঠানে যোগদান করতে দলের নেতা কর্মীরা শতাধিক মোটর শোভাযাত্রা সহ বিপুল সংখ্যক মানুষের উপস্থিতিতে সভা-সমাবেশ  করছে। এতে করে এলাকার মানুষ করোনা সংক্রমনের শংকায় শংকিত হয়ে উঠেছেন।

এলাকাবাসীর অভিযোগ,শুক্রবার প্রশাসনের  সামনে দিয়ে এমন মোটর শোভাযাত্রা করা  হয়েছে। শতাধিক  মোটর সাইকেলের  শোডাউন করে  উপজেলার দুড়দুড়িয়া ইউনিয়নের ভেল্লাবাড়ি মাজার এলাকায় যায় দলের নেতা কমর্রিা। সেখানে ইউনিয়ন তাঁতিলীগের নতুন কমিটির দায়িত্ব গ্রহন উপলক্ষে অনুষ্ঠানে যোগদিতেই এই মোটর শোভাযাত্রা বের করা হয়। পরে দলের শতাধিক নেতা-কর্মী ও সমর্থকরা এলাকায় আনন্দ র‍্যালী করেন। এসময় করোনা শংক্রমিত হওয়ার শংকায় আতংকিত হয়ে পড়েন এলাকার অনেকেই।

খোদ আওয়ামীলীগের স্থানীয় শীর্ষ নেতাদের অনেকেই এনিয়ে শংকা প্রকাশ করেছেন। ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক  ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান

আব্দুল হান্নান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এরা কারা দলের স্থানীয় পযার্য়ের শীর্ষ  পদে থেকেও তিনি যানেননা। তবে তারা স্থানীয় এমপির সমর্থক এবং জামায়াত-বিএনপি থেকে আসা  হাইব্রিড আওয়ামীলীগ। মানুষকে করোনা সম্পর্কে সচেতন করার নামেও এরা শত শত মানুষ নিয়ে অনুষ্ঠান করে। অথচ দলের কেন্দ্রিয় নেতাদের নির্দেশ অনুযায়ী করোনা নিয়ে কর্মসুচী গ্রহণের জন্য স্থানীয় আওয়ামীলীগের ঘরোয়া মতবিনিময় সভা আহ্বান করার পর স্বাস্থ্যবিধির অজুহাত দেখিয়ে প্রশসানের নির্দেশে স্থগিত করতে হয়। হাইব্রিডরা যেভাবে শত শত মানুষ নিয়ে সভাসমাবেশ ও শোভা যাত্রা বের করেন তাতে লালপুরে করোনা সংক্রমনের হার বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা বেশী বলে মনে করেন তিনি।

উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আফতাব হোসেন ঝুলফু বলেন,তারও এনিয়ে শংকিত। এরা আওয়ামীলীগের কাঠামোর সাথে জড়িত নয়। উপজেলা আওয়ামীলীগের সিংহভাগ নেতা কর্মী এই সব হাইব্রিডদের বেপরোয়া কর্মকান্ডে করোনা সংক্রমন নিয়ে শংকিত।