নরসিংদীতে সংবাদ সম্মেলন করে মেয়ে হত্যার বিচার চাইলেন মা

আমজাদ হোসেন, নরসিংদী জেলা প্রতিনিধি ঃ নরসিংদীতে সংবাদ সম্মেলন করে নিজের একমাত্র স্কুল পড়ুয়া মেয়ে হত্যার বিচার দাবী করলেন মা জোসনা বেগম। সংবাদ সম্মেলন মা জোসনা বেগম জানন, স্বামী নদীতে নৌকার মাঝি হিসেবে কাজ করেন। সংসারের তাদের একমাত্র সন্তান নিহত সোনিয়া আক্তার (১৩)। সে রায়পুরা উপজেলার চাঁনপুর ইউনিয়নের সদাগরকান্দি উচ্চ বিদ্যালয়ে ৮ম শ্রেনীতে লেখাপড়া করতো। তার জেএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহনের জন্য ধার করে ৫০০ টাকা দিয়ে রেজিস্ট্রেশনও করেছিল। কিন্তু ভাগ্যের নির্মম পরিহাস জেএসসি পরীক্ষা আর দেয়া হয়নি। এর আগেই তার প্রাণ পাখি কেরে নিলো দুর্বৃত্তরা।

নিহত সোনিয়া আক্তারের মা জোসনা বেগম সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের সামনে মেয়ের কথা বলতে বলতে চোখে জল ঝড়িয়ে বলেন, আমার একখন্ড জমি জোড় করে স্থানীয় বাবুল নামে এক নেতা তার এক আত্মীকে দখলে দিয়ে দেয়। আমরা বাধা দিলে সে অবৈধভাবে দুই লাখ টাকা দাবী করে। তার এ দাবী পুরণ করতে না পারায় কয়েকদিন পরপর আমাদের উপড় হামলা করে। এরই মধ্যে গত ২৮ মার্চ সকালে বাবুল তার লোকজনদের নিয়ে সোনিয়ার বাবাকে মেরে রক্তাক্ত করে এবং আমাকে ও আমার পরিবারের সদস্যদের মারধোর করে। এই অবস্থায় মেয়ে সোনিয়া আক্তার এগিয়ে আসলে বাবুল তার হাতে থাকা টেঁটা দিয়ে সোনিয়াকে আঘাত করে। সাথে সাথে সোনিয়া লুটিয়ে পড়ে।

এসময় বাবুল তার লোকজন নিয়ে চলে গেলে আশপাশের লোকজন সোনিয়া ও তার বাবাকে রায়পুরা হাসপাতালে নিয়ে যায়। এসময় সোনিয়ার অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় তাকে দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ভর্তি অবস্থায় ওইদিনই বিকেলে সোনিয়া মারা যায়। এঘটনায় সোনিয়ার বাবা জালাল মিয়া বাদী হয়ে বাবুল মিয়াকে প্রধান আসামী করে ১৬ জনের নামে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর থেকে মামলা তুলে নেয়ার জন্য বাবুল বাহিনীর অব্যাহত হুমকিতে এখন জীবনের নিরাপত্তার অভাববোধ করছি। তাই আজ সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে দেশের সর্বোচ্চ ব্যক্তিদের কাছে আমার অনুরোধ আমার একমাত্র মেয়ে সোনিয়া আক্তার (১৩) হত্যার সাথে জড়িত প্রকৃত আসামীদের দ্রুত গ্রেফতার ও শাস্তি দাবী করছি।

সংবাদ সম্মেলনে সোনিয়া আক্তারের মা জোসনা ছাড়াও এলাকাবাসীর পক্ষে আরো বক্তব্য রাখেন চাঁনপুর ইউনিয়ন মুক্তি সংসদের প্রতিনিধি বীরমুক্তিযোদ্ধা শুক্কুর আলী, বীমেুক্তিযোদ্ধা লিয়াকত আলী ও স্বজন ইলিয়াছ হোসেন ফুলমিয়া। এসময় এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে প্রায় অর্ধশতাধিক সাধারণ জনগণ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য: সোনিয়া আক্তার হত্যার প্রধান অভিযুক্ত বাবুল মিয়ার নামে নরসিংদীর রায়পুরা ও ব্রাহ্মনবাড়িয়া জেলায় একাধিক মামলা রয়েছে বলে জানা গেছে। এদিকে বুধবার (১৩ মে) বিকেলে ব্রাহ্মনবাড়িয়ার নবীনগর থানা পুলিশ একটি মামলায় বাবুল মিয়াকে গ্রেফতার করে।