নরসিংদীতে নৌকা ভ্রমণে গিয়ে দু-পক্ষের সংঘর্ষে স্কুলছাত্রের মৃত্যু

 আমজাদ হোসেন, নরসিংদী জেলা প্রতিনিধি: দিন যতই যাচ্ছে করোনা যতই বৃদ্ধি পাচ্ছে আর তার সাথে বৃদ্ধি পাচ্ছে মানুষের আনন্দ উল্লাস । বর্তমানে নরসিংদীতে নৌকা ভ্রমনের নামে চলছে মহা উৎসব । এছাড়া বিভিন্ন পর্যটন স্থান গুলোতে থাকছে উপছে পড়া ভীড়। প্রশাসন থেকে সামাজিক দুরত্বের কথা বার বার বললেও তা মানছেনা কেউ। করোনার শুরুর প্রথম দিকে প্রশাসনের যেমন কঠোর নজরদারী ছিল বর্তমানে তা অনেকটাই শিথিল ।
এ সুযোগে পুর্ণ সদ ব্যবহার করছে একশ্রেনীর বখাটের দল। এরই ধারাবাহিকতায় ঈদ উপলক্ষে মেঘনা নদীতে নৌ ভ্রমণে গিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে প্রাণ গেলে অনিক মিয়া (১৫) নামে এক স্কুলছাত্রের। মঙ্গলবার (৪ আগস্ট) সন্ধ্যা ৬টার দিকে সদর উপজেলার নাগরিয়াকান্দিস্থ শেখ হাসিনা সেতুর নীচে এই ঘটনা ঘটে। নিহত অনিক সদর উপজেলার কালাইগোবিন্দপুর এলাকার শহিদুল্লাহ মিয়ার ছেলে ও সাটিরপাড়া কালিকুমার উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণীর ছাত্র। শহিদুল্লাহ মিয়া সপরিবারে নরসিংদী শহরের সাটিরপাড়া মহল্লায় ভাড়া বাড়িতে বসবাস করেন।
নিহতের স্বজনরা জানান, ঈদ উপলক্ষে মেঘনা নদীতে নৌকা ভ্রমণে যায় অনিকসহ অন্যান্য সঙ্গীরা। ফেরার পথে অপর একটি নৌকার লোকজনের সাথে কাঁদা ছোড়াছুড়ি নিয়ে ঝগড়ার সৃষ্টি হয়। দুটি নৌকা নাগরিয়াকান্দিস্থ শেখ হাসিনা সেতুর নিচে এসে পৌছলে দুই পক্ষই লাঠিসোঠা নিয়ে মারামারি শুরু করে।
এসময় মাথায় আঘাত পেয়ে নৌকা থেকে পানিতে পড়ে ডুবে নিখোঁজ হয় স্কুলছাত্র অনিক। উপস্থিত লোকজন প্রায় ৩০ মিনিট খোঁজাখুজির পর তাকে উদ্ধার করে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে সদর থানা পুলিশ মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে।