নদী ভাঙ্গনের কবল থেকে রক্ষা পেতে চায় কোম্পানীগঞ্জ  চরএলাহির বাসিন্দারা

হাসান ইমাম রাসেল, নোয়াখালী জেলা প্রতিনিধি: নোয়াখালী কোম্পানিগঞ্জ উপজেলার চর এলাহীতে নদীর ভাঙনের ফলে ঘরবাড়ী বিলীন হয়ে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত। তাই এখানে সারা বছর অনেকে শুধু নিজের ঘর স্থানান্তরে ব্যস্ত সময় পার করে।

আবার কেউ কেউ কোথায় গিয়ে আশ্রয় নেবেন সেই চিন্তায় দিন কাটে। সরেজমিনে ইউনিয়নের গ্রামবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, প্রতিনিয়ত এই এলাকার মানুষের ঘরবাড়ি নদীর গর্ভে বিলিন হচ্ছে দ্রুত সমস্যা সমাধানে আপাতত কোনো উদ্যোগ নেয়া হয়নি প্রশাসনের পক্ষ থেকে। ভরা মৌসুমে চর এলাহীর নদীর পাড় ভাঙছে স্রোতের কারনে।

বিলীন হচ্ছে গাছপালা, স্কুল, ঘর-বাড়ি ও ফসলি জমি। হতো-দরিদ্র মানুষ গুলো তাদের মাথাগোঁজার একমাত্র সম্বল এই ঘর-বাড়ী হারিয়ে নিঃস্ব হচ্ছে প্রতিনিয়ত। তবে আসার আলো দেখাচ্ছে নদী ভাঙনরোধে সরকারের চলোমান কার্যক্রম যার অংশ হিসেবে চলছে বেড়ীবাঁধ নিমার্ণ ও ব্লক তৈরির কাজ। তবে [করোনাভাইরাস] এর কারণে চলোমান সকল কাজ স্থবির রয়েছে।

ফলে আবারো হুমকির মুখে পড়েছে নদী তীরের মানুষগুলোর শেষ সম্বল টুকু। চর এলাহি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক জানান, সেনাবাহিনীর তত্বাবধানে যেহেতু কাজ চলছে,মহামারীর কারনে সেটি স্থবির।তাই আপাতত একটি রিং বাঁধ নির্মান করলে ইউনিয়নের কয়েকটি ওয়ার্ডের জনগন রক্ষা পাবে। না হলে এ মানুষ গুলো কোথায় যাবে? তাই কতৃপক্ষ বিষয়টিতে দৃষ্টি দিবেন এমনটাই আশা সকলের।