নতুন নয় আগের তথ্যই প্রকাশ করলেন পিবিআই

দীর্ঘ তদন্তের পর পিবিআই জানিয়েছে, পারিবারিক কলহ ও মানসিক যন্ত্রণায় আত্মহত্যা করেছেন সালমান শাহ।সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় রাজধানীর ধানমন্ডিতে পিবিআই সদর দফতরে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানায় পিবিআই। পিবিআইর মহাপরিচালক বনজ কুমার মজুমদার সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন।

তিনি বলেন, সালমান শাহ রহস্যজনক মৃত্যুর মামলার তদন্ত প্রতিবেদন চূড়ান্ত করা হয়েছে। তাকে হত্যা করা হয়েছে এমন কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি তদন্তে। আমরা সালমানের তখনকার স্ত্রী সামিরা, তার স্বজন, প্রতিবেশী, বন্ধু-বান্ধব, সহকর্মী সকলের বক্তব্য নিয়েছি। সবমিলে এটিই প্রতীয়মান হয়েছে যে, পারিবারিক কলহ ও মানসিক যন্ত্রণা সইতে না পারায় আত্মহত্যা করেন সালমান শাহ।

উল্লেখ্য, বাংলা সিনেমার অমর নায়ক সালমান শাহ। ১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর বেডরুমের সিলিং ফ্যানে ঝুলন্ত অবস্থার তার লাশ উদ্ধার করা হয়। তার রহস্যজনক মৃত্যুর ২৩ বছর পেরিয়ে গেছে। সালমানের মৃত্যুকে আত্মহত্যা বলে উল্লেখ করা হলেও তা অদ্যাবধি মেনে নিতে পারেনি তার মা নীলা চৌধুরী ও অগুনতি ভক্ত।

সর্বশেষ ২০১৬ সালের শেষ দিকে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) নতুন করে তদন্তভার দেয়া হয়। সেই তদন্তের সূত্র ধরেই সোমবার তদন্ত নিয়ে কথা বলেন পিবিআই।