ধামরাইয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জম্মদিনের অনুষ্ঠানে হামলা শিকার ইউনিয়ন আ’লীগ নেতা

মোঃ আমিনুর রহমান, ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি: ধামরাইয়ের বালিয়া ইউনিয়ন আ’লীগের ১নং যুগ্ন সাধারন সম্পাদক আব্দুল গনি সুমন এর উপর অতর্কিত ভাবে হামলা করার অভিযোগ উঠেছে বালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক, আ’লীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যশী মুজিবুর রহমান ও তার সমর্থকদের উপর।

জানা যায়, প্রধানমন্ত্রীর ৭৪ তম জম্মদিন উপলক্ষে বালিয়া ইউনিয়নের বাস্তা বাজারে বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) আলোচনা সভা ও দোয়া মাহিফল এর আয়োজন করা হয়, এতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব বেনজীর আহমদ। বিশেষ অতিথি উপস্থিত ছিলেন ঢাকা জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি কাজী শওকত হোসেন শাহীন, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সোহানা জেসমিন মুক্তা, বালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আহম্মদ হোসেন।

অনুষ্ঠান চলার এক পর্যায় বালিয়া ইউনিয়ন আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও বালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ মুজিবুর রহমানের সমর্ধকরা ঢাকা-২০ এর সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব বেনজীর আহমদ এর উপস্থিতিতে বালিয়া ইউনিয়ন আ’লীগের ১নং যুগ্ন সাধারন সম্পাদক আব্দুল গনি সুমন এর উপর অতর্কিত হামলা করে।হামলার এক পর্যায় কর্মরত পুলিশ হামলা কারিদের বাধা প্রদান করলে পুলিশ ও হামলা কারিদের সাথে ধস্তাধস্তি চলে,

এ সময় এলাকায় ও অনুষ্ঠানে আতংকের সৃস্টি হয়,পরে স্থানীয় এমপি সাহেবের নির্দেশে হামলা কারীরা নিয়ন্ত্রনে আসে। এ বিষয়ে হামলার শিকার বালিয়া ইউনিয়ন আ’লীগের ১নং যুগ্ন সাধারন সম্পাদক আব্দুল গনি সুমন বলেন,আমি প্রধানমন্ত্রীর ৭৪ তম জম্মদিন উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহিফল অনুষ্ঠানে ঢাকা-২০ এর সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব বেনজীর আহমদ ও বালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আহম্মদ হোসেন তাদের সাথে যাই,

আমি ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আহম্মদ হোসেন এর সমর্থক হওয়ায় অনুষ্ঠানে উপস্থিতির এক পর্যায় মনোনয়ন প্রত্যশী মুজিবুর রহমান ও তার ভাই মিজানুর, লুৎফর সহ তাদের সমর্থকরা আমার উপর অতর্কিত ভাবে হামলা করে। তিনি আরো বলেন অনুষ্ঠান শেষে সন্ধ্যায় দিকে চৌরাস্তা বাজারে ফার্মেসীর দোকানদার মোঃ নজরুল কে প্রায় ৩০-৩৫ সদস্যের একটি দল মুজিবুর সহ এসে হুমকি দিয়ে যায়।

ফার্মেসী দোকানদার নজরুল ইসলাম বলেন,আমার দোকানে আমি বালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আহমদ হোসেন ও বালিয়া ইউনিয়ন আ’লীগের ১নং যুগ্ন সাধারন সম্পাদক আব্দুল গনি সুমন কে বসতে দেওয়ায় আমার দোকান উড়িয়ে দিবে আমাকে মারধর করবে বলে মনোনয়ন প্রত্যশী মুজিবুর রহমান এর ভাই মিজানুর রহমান ও তার প্রায় ৩০-৩৫ সদস্যের একটি দল দেশীয় অস্ত্রের মুখে আমাকে হুমকি প্রদান করে।

এ বিষয়ে কাওয়ালীপাড়া বাজার পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ রাসেল মোল্লা হামলার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন এখনো কোনো পক্ষ থেকে অভিযোগ পাইনি,অভিযোগ করলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।