ধর্ষণ মামলায় ফাসিয়ে মোটা অংকের চাঁদা দাবি

সৈয়দ মাসুদ, রাজশাহী প্রতিনিধি: নামের সাথে মিল থাকায় মিথ্যে ধর্ষণ মামলায় ফাসিয়ে মোটা অংকের চাঁদা দাবি, প্রান নাশের হুমকি ও হয়রানির অভিযোগ তুলে বাঘা থানার এস আই আশরাফ আলী ও কথিত রাজনৈতিক নেতা মাসুদ রানা ওরফে তিলু ল্যাংড়ার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভুক্তভুগি রাব্বি হোসেনসহ তার পরিবার।

আরজেএফ-এর জেলা শাখার কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন রাব্বির চাচাতো ভাই রনি আহাম্মেদ। এ সময় লিখিত বক্তব্যে রনি বলেন, মাসুদ রানা অরফে তিলু ল্যাংড়া একজন প্রতারক। থানার যোগসাজসে রাব্বিকে আটকে রেখে তিন লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে। নিরুপায় হয়ে তিলু ল্যাংড়ার মাধ্যমে ১ লক্ষ ৭৫ হাজার টাকা প্রদান করলেও বাকি টাকার জন্য তারা চাপ দিতে থাকে।

এক পর্যায়ে ভুক্তোভুগির পরিবার আইনের আশ্রয় নিতে চাইলে ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার জন্য এস আই আশরাফ তরিঘরি করে তিলু ল্যাংড়াকে বাদী করে মিথ্যে নাটক সাজিয়ে রাব্বিকে চাঁদাবাজী মামলায় আটক দেখিয়ে জেল হাজতে প্রেরণ করে।

পরে সে জামিনে মুক্তি পেলে পুনরায় হয়রানির লক্ষ্যে তার বিরুদ্ধে স্থানীয় একটি মেয়েকে ধর্ষণের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় তার নাম ডুকিয়ে দেয় পুলিশ। এ সময় এসব মিথ্যা মামলা হতে অব্যাহতি, পরিবারের নিরাপত্তা এবং অপরাধীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানান তারা।