দৌলতখানে গৃহবধূকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ, যুবক গ্রেফতার

মোঃ হাছনাইন, দৌলতখান (ভোলা) প্রতিনিধি: ভোলার দৌলতখানে গৃহবধূকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে গিয়াস উদ্দিন (৩৫) নামের এক কাঠ ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ।

শনিবার বিকালে তাকে উপজেলার সৈয়দপুর ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের চরশুভী গ্রাম থেকে গ্রেফতার করা হয়।

ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে একটি মহল চেষ্টা চালিয়েছে বলে স্থানীয়রা অভিযোগ করেছেন। গিয়াস উদ্দিন ওই ওয়ার্ডের আবদুল খালেক-এর ছেলে।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী বাদী হয়ে দৌলতখান থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার বিববরণ ও ভুক্তভোগীর ভাষ্যমতে, জীবন-জীবিকার তাগিতে তার স্বামী কুমিল্লায় চাকরি করেন। স্বামী বাড়িতে না থাকার সুযোগে প্রতিবেশী গিয়াস উদ্দিন

প্রায়ই তাকে কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন। গৃহবধু তার কুপ্রস্তাব বার বার প্রত্যাখ্যান করেন।

ঘটনার দিন বুধবার সন্ধ্যায় তিনি ঘরে একা থাকার সুযোগে গিয়াসউদ্দিন তার বসতঘরে ঢুকে জোরপূর্বক তাকে

ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। এ ঘটনায় ওই নারী বাদি হয়ে শনিবার থানায় ধর্ষণ চেষ্টা মামলা দায়ের করেন।

মামলা দায়েরের পর পুলিশ অভিযুক্ত গিয়াস উদ্দিনকে গ্রেফতার করেছে। মামলা বিলম্বে কেন?

এ প্রশ্নের জবাবে ভুক্তভোগী বলেন, স্থানীয় গণ্যমাণ্য ব্যক্তিবর্গ বিষয়টি আপষ মীমাংসার চেষ্টা করায় মামলা বিলম্বিত হয়েছে।

দৌলতখান থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ বশির আহ্মেদ খান জানান,

এ ঘটনায় মামলা দায়ের করার পর আসামী গিয়াস উদ্দিনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

রোববার সকালে তাকে ভোলা আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।