দেশের সবচেয়ে লম্বা মানুষটি আর নেই

বাংলাদেশের সবচেয়ে লম্বা মানুষ কক্সবাজারের জিন্নাত আলী আর নেই। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ মঙ্গলবার ভোর রাতে মারা যান তিনি। তাঁর বয়স হয়েছিল মাত্র ২৪ বছর।

জিন্নাত আলীর ভাই ইলিয়াস আলী জানান, দীর্ঘদিন ধরে ডায়াবেটিস, শ্বাসকষ্ট, মস্তিষ্কে টিউমারসহ একাধিক রোগে ভুগছিলেন জিন্নাত। কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য গত রোববার তাঁকে চমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গতকাল সোমবার থেকে সেখানে লাইফ সার্পোটে ছিলেন জিন্নাত।

চমেক হাসপাতালের চিকিৎসক নোমান খালেদ জানান, নিউরো সার্জারি বিভাগে আনার আগে থেকে জিন্নাতের জ্ঞান ছিল না। তাঁর মস্তিষ্কের টিউমার বেশ বড় ও জটিল। পাশাপাশি ডায়াবেটিস, শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত ছিলেন তিনি।

জিন্নাতের ভাই ইলিয়াস আলী আরো জানান, আজ মঙ্গলবার সকাল ৬টার দিকে তারা কক্সবাজারের উদ্দেশে রওনা দেন। গর্জনিয়ার বড়বিল গ্রামে পারিবারিক কবরস্থানে জিন্নাতকে দাফন করা হবে বলেও জানান তিনি।

কক্সবাজারের রামু উপজেলার গর্জনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) বড়বিল গ্রামে ১৯৯৬ সালে জন্মগ্রহণ করেন জিন্নাত আলী। ১১ বছর বয়স থেকেই তাঁর শরীরের উচ্চতা বাড়তে থাকে। ৮ ফুট ৬ ইঞ্চি উচ্চতা নিয়ে বিশ্বের দ্বিতীয় ও বাংলাদেশের মধ্যে প্রথম ব্যক্তি ছিলেন জিন্নাত। তুরস্কের সুলতান কোশেন বিশ্বের প্রথম দীর্ঘ ব্যক্তি।

এর আগে প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাতের সুযোগ হয়েছিল জিন্নাত আলীর। প্রধানমন্ত্রী তাঁকে কক্সবাজারে একটি দোকান নির্মাণ ও চিকিৎসার ব্যয়ভার গ্রহণ করেছিলেন।