দুর্গাপুরে হাত-পা বাধা বস্তাবন্দি এক গৃহবধুর মরদেহ উদ্ধার

জাহাঙ্গীর আলম, নেত্রকোণা প্রতিনিধিঃ নেত্রকোণা জেলার দুর্গাপুর উপজেলার কংস নদীর পাড় থেকে হাত-পা, মুখ বাঁধা অবস্থায় বস্তাবন্দি শুক্লা সাহা (৪০) নামে এক গৃহবধুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তিনি উপজেলার ঝাঞ্জাইল বাজার এলাকার সুকুমার সাহার স্ত্রী।

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারী) বিকেলে পূর্বধলা ও দুর্গাপুর উপজেলার সীমানার ঝাঞ্জাইল বাজার এলাকার কংস নদীর পারে আসাদ মিয়ার একটি ঘর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দুর্গাপুর সার্কেল এসপি নেলি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এসময় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৩জনকে থানা হেফাজতে নেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি। স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, আজ মঙ্গলবার বিকাল আড়াইটার দিকে উপজেলার কংস নদীর পারে অবস্থিত আসাদ মিয়ার একটি ঘরে পাটের বস্তা দেখতে পায় পার্শ্ববর্তী লোকজন। পরে সন্দেহ হলে বস্তা খুলে হাত-পা মুখ বাধা অবস্থায় শুক্লার মরদেহ দেখতে পায়।

পরে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তার মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। এসময় ৩জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়। এদিকে লাশ ময়না তদন্তের জন্য নেত্রকোণা জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। শ্বাসরোধ করে তাকে খুন করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ।