দুই মামলায় যুবলীগের বহিষ্কৃত নেতা খালেদের বিচার শুরু

বৈদেশিক মুদ্রা নিয়ন্ত্রণ আইন ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের পৃথক দুই মামলায়

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন আদালত।

রোববার (২১ মার্চ) ঢাকার অতিরিক্ত তৃতীয় মহানগর দায়রা জজ রবিউল আলম তার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন।

এর মধ্য দিয়ে এ দুই মামলায় তার আনুষ্ঠানিক বিচার শুরু হলো। একইসঙ্গে মামলার সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য ১ জুন দিন ধার্য করেন আদালত।

গত বছরের ১৮ ফেব্রুয়ারি গুলশান থানায় খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে বৈদেশিক মুদ্রা নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করে সিআইডি।

আর চলতি বছরের শুরুতে মতিঝিল থানায় মাদক আইনে করা মামলায় চার্জশিট দেয় পুলিশ।

বৈদেশিক মুদ্রা নিয়ন্ত্রণ আইনে করা মামলার অভিযোগে বলা হয়, ক্যাসিনো খালেদের বাসা থেকে ছয়টি দেশের মুদ্রা জব্দ করা হয়।

এর মধ্যে সিঙ্গাপুরের ১০ হাজার ৫০ ডলার, থাইল্যান্ডের ১০ হাজার ৪৯০ বাথ, ভারতীয় সাড়ে তিন হাজার রুপি,

সৌদি আরবের দুই হাজার ৩২১ রিয়াল, মালয়েশিয়ান ৬৫৬ রিঙ্গিত ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের ৭৫ দিরহাম ছিল।

আর মাদক মামলায় বলা হয়, গুলশানের বাসা থেকে আটকের সময় ৪০০ পিস ইয়াবা, তিনটি অস্ত্র ও বেশ কিছু টাকা উদ্ধার করা হয়।

যার একটি লাইসেন্সবিহীন, অপর দুটি লাইসেন্সের শর্ত ভঙ্গ করে রাখা হয়েছিল।