দীর্ঘ প্রতীক্ষিত বেলাব; হাতির দিয়া রাস্তাটির সংস্কার কাজ শুরু

আমজাদ হোসেন, নরসিংদী জেলা প্রতিনিধি:  নরসিংদী বেলাব উপজেলার গঙ্গাজলী হতে মনোহরদী উপজেলার হাতির দিয়া বাজার পর্যন্ত প্রায় সাড়ে নয় কিলো মিটার রান্তাটি সংস্কার কাজ শুরু হয়েছে । রাস্তাটির সংস্কার কাজ শুরু হওয়ায় এলাকার মানুষের মাঝে দেখা দিয়েছে স্বস্থির নিঃস্বাশ। দীর্ঘ দিন যাবত রাস্তাটিতে কোন প্রকার সংস্কার না হওয়ায় তা পরিনত হয়েছিল মরন ফাদে। বড় বড় গর্ত আর খানা খন্দে ভরপুর ছিল পুরো রাস্তাটি । বিশেষ করে গঙ্গাজলী থেকে চুলা পর্যন্ত ২ কিলো মিটার রাস্তাটির অবস্থা এতই ভয়াবাহ ছিল যে ১০ মিনিটের রাস্তাটি পাড়ি দিতে সময় লাগতো প্রায় ৪০ মিনিট ।
অনেক সময় যান বাহন বিকল্প রাস্তা ব্যাবহার করে প্রায় ১৫ কিলো মিটার পাড়ি দিয়ে হাতিরদিয়া বাজারে পৌছত। দুটি উপজেলার সেতু বন্ধন হিসেবে রাস্তাটি এতই গুরুত্ব পূর্ণ যে প্রতিদিন শত শত যান বাহন রাস্তাটি দিয়ে যাতায়াত করে । উভয় উপজেলায় কর্মরত সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারী ,স্কুল কলেজের ছাত্র- ছাত্রী ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক কর্মচারী সহ শত শত মানুষ প্রতিদিন যাতায়াত করে। মনোহরদী উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আব্দুর সাকের জানান সাড়ে নয় কিলো মিটার রাস্তাটির সংস্কার ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় পনের কোটি টাকা ।
রাস্তটির উভয় পাশে প্রশস্ত করে তা আঠারো ফুটে উন্নতি করা হবে ।অনেক ক্ষেত্রে রাস্তাটির বাঁক সোজা করতে বিভিন্ন বাঁধা বিপত্তির সম্মুখ হতে হচ্ছে বলে তিনি জানান।। মনোহরদী উপজেলার চুলা প্রতিবন্ধী কমপ্লেক্স বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষিকা সুমী আক্তার বলেন রাস্তাটির সংস্কার কাজ দেখে আমার কাছে বেশ আনন্দ লাখছে । দীর্ঘ দিন যাবৎ এই ভাংগা রাস্তাটি দিয়ে যাতায়াত করে সময়মত বিদ্যালয়ে পৌঁছতে পারিনি ।
তাছাড়া রাস্তটিতে বড় বড় গর্ত থাকায় যাতায়াত করাও অনেক কষ্ট সাধ্য হত। রাস্তাটির সংস্কার কাজ শুনু হওয়ায় সে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানায় । পাঁচ কান্দি ডিগ্রী কলেজের দ্বাদশ শ্রেনীর ছাত্র ইয়াসিন আহমেদ তামিম জানান রাস্তাটিতে সংস্কারের শুরু হওয়ায় খুভ ভালো লাগছে । কারন রাস্তাটি দিয়ে বিগত সময়ে যাতায়াত করে কোন দিনই নির্দিষ্ট সময়ে কলেজে পৌঁছতে পারিনি । অনেক সময় ক্লাশ শুরুর হওয়ার আধা থেকে এক ঘন্টা সময় পরে পৌঁছতে হয়েছে ফলে লেখা পড়ার অনেক ক্ষতি হয়েছে।