দাম কমল ডিএপি সারের; প্রতি কেজি ১৬ টাকা

ডিএপি সারের ব্যবহার বাড়াতে এবং ইউরিয়া সারের ব্যবহার কমিয়ে পরিবেশবান্ধব করার লক্ষ্যে খুচরা পর্যায়ে দাম প্রায় অর্ধেকে নামিয়ে আনা হয়েছে। প্রতি কেজি ডায়-অ্যামোনিয়াম ফসফেট (ডিএপি) সারের দাম ২৫ টাকা থেকে কমিয়ে ১৬ টাকা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক।

বুধবার (৪ ডিসেম্বর) দুপুরে সচিবালয়ে নিজ কার্যালয়ে সার নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান তিনি।

ডিলার এবং কৃষক পর্যায়ে ডিএপি সারের মূল্য প্রতি কেজি ৯ টাকা করে কমানো হচ্ছে জানিয়ে কৃষিমন্ত্রী বলেন, কৃষক পর্যায়ে এ সারের সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য হবে প্রতি কেজি ১৬ টাকা; আগে যা ছিল ২৫ টাকা। আর ডিলার পর্যায়ে প্রতি ২৩ টাকা থেকে কমিয়ে ১৪ টাকা করা হবে। যা চলতি ডিসেম্বর মাসেই কার্যকর হবে।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, ইউরিয়া সারের ব্যবহার হ্রাস ও ডিএপি সারের ব্যবহার বাড়ায় কৃষকদের উৎপাদন খরচ লাঘবের উদেশ্যে একটি প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রী বরাবর উপস্থাপন করা হলে সারের দাম কমানোর প্রস্তাবে অনুমোদ দেন। যা বিজয়ের মাসে সরকারের এ পদক্ষেপ কৃষকের মুখে হাসি ফোটাতে সাহায্য করবে।

কৃষি মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলনে কৃষি সচিব নাছিরুজ্জামানসহ অন্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।