দরিদ্র কৃষকের ধান কেটে দিলেন সাদুল্লাপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগ

জেমস বাড়ৈ, কোটালীপাড়া প্রতিনিধি: গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলার সাদুল্লাপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নেতৃত্বে আজ শনিবার ৫০ সদস্যের একটি টিম ইউনিয়নের নৈয়ারবাড়ী গ্রামের শংকর বাড়ৈ নামে এক মানসিক প্রতিবন্ধী কৃষক এর ধান কেটে দেয়।
এ সময় সাদুল্লাপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের হাতে খাদ্যসামগ্রী তুলে দেন যুবনেতা শ্যামল বাড়ৈ।যুবনেতা শ্যামল বাড়ৈ ছাত্রলীগের ভূয়সী প্রশংসা ও উৎসাহ প্রদান করেন এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা এই ধারা অব্যাহত রাখার জন্য ছাত্রনেতাদের অনুরোধ করেন। এ সময় সাদুল্লাপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি রমনী রায়, নৈয়ারবাড়ী বাজার কমিটির সভাপতি দীনেশ সরকার , যুব নেতা জীবন বাগচি,মিঠুন মন্ডল,সঞ্জীব বাড়ৈ, সহকারি সমন্বয়ক সহ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে এই মহামারী সময়ে বিনা পারিশ্রমিকে ধান কেটে দেওয়ায় খুশি দরিদ্র কৃষক সহ এলাকাবাসী, মানসিক ভারসাম্যহীন কৃষক শংকর বাড়ৈর পরিবার বলেন, জমিতে ধান পেকে পড়ে ছিল, কৃষক পাওয়া যাচ্ছিল না,এ অবস্থায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা এসে আমাদের ধান কেটে দিলো।এই ধান কেটে দেওয়ার জন্য আমি তাদের কাছে চিরকৃতজ্ঞ।সাদুল্লাপুর ইউনিয়ন ছাত্র নেতা বিবেক বিশ্বাস বলেন, বর্তমানে আমাদের ইউনিয়নে ধান কাটার জন্য শ্রমিক পাওয়া যাচ্ছে না।
তাই আমরা কৃষকদের ক্ষেতের পাকা ধান কেটে দিচ্ছি,আমরা কোটালীপাড়া উপজেলা ছাত্র লীগের নির্দেশনা অনুযায়ী গত ২৩ দিন ধরে ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ড এর, বিভিন্ন গ্রামের, কৃষকদের ক্ষেতের পাকা ধান কেটে দিচ্ছি এবং পুরো ইউনিয়নের ধান কাটা শেষ না হওয়া পর্যন্ত আমাদের এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। সেই সাথে যুব নেতা শ্যামল বাড়ৈ দাদাকে ধন্যবাদ জানাই তিনি আমাদের মাঝে আজ অনেক খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিয়েছেন।